February 25, 2021

Jagobahe24.com news portal

Real time news update

প্লাস্টিক পণ্যের মান আরো ভালো করার আহ্বান বাণিজ্যমন্ত্রীর

প্লাস্টিক পণ্যের মান আরো ভালো করার আহ্বান বাণিজ্যমন্ত্রীর

প্লাস্টিক পণ্যের মান আরো ভালো করার আহ্বান বাণিজ্যমন্ত্রীর

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, বিশ্বব্যাপী প্লাস্টিক পণ্যের বিপুল চাহিদা রয়েছে। সম্ভাবনাময় এই বাজার দখলে নিতে আমাদের দক্ষতা বাড়ানোর পাশাপাশি পণ্যের মান ও ডিজাইন আরো ভাল করতে হবে।

শনিবার ঢাকার দক্ষিণ কেরানিগঞ্জের পানগাঁও কনটেইনার পোর্ট রোডে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্লাস্টিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজির (বিআইপিইটি) নতুন ক্যাম্পাসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

বাংলাদেশ প্লাষ্টিক গুডস ম্যান্যুফ্যাকচারার্স এন্ড এক্সপোর্টার্স এ্যাসোসিয়েশন (বিপিজিএমইএ) ও বিআইপিইটি যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বিশ্বব্যাপী প্রতিনিয়ত প্লাস্টিক পণ্যের চাহিদা বাড়ছে। এই সুযোগ কাজে লাগাতে সরকার প্লাস্টিক শিল্পের উন্নয়নে সহায়তা করে আসছে। তবে টেকসই উন্নয়নে ব্যবসায়ীদের এগিয়ে আসতে হবে।

বৈশ্বিক প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে দক্ষতা অর্জনের বিকল্প নেই উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, এক সময় বাংলাদেশ তৈরী পোশাক শিল্পের চাহিদা পূরণে বিদেশ থেকে প্লাস্টিক পণ্য আমদানি করত। বর্তমানে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ প্লাস্টিক পণ্যের চাহিদা পূরণ করে বিদেশে রপ্তানি করছে। প্লাস্টিক পণ্যকে তৈরি পোশাকের মত গুরুত্বপূর্ণ রপ্তানি পণ্যে উন্নীত করতে সংশ্লিষ্টদের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা (এলডিসি) থেকে উত্তোরণের প্রসঙ্গে সরকারের জ্যেষ্ঠ এই মন্ত্রী বলেন, সামনে আমাদের আলোকিত পথ অপেক্ষা করছে, এগিয়ে যেতে হবে সামনের দিকে। এজন্য যোগ্যতা ও দক্ষতা অর্জন করতেই হবে।

তিনি জানান, সরকার ইতোমধ্যে ভূটানের সাথে পিটিএ স্বাক্ষর করেছে। নেপালের সাথে শীঘ্রই চুক্তি হবে। আরও অনেক দেশের সাথে আলোচনা চলছে। তবে এসব চুক্তির আওতায় প্রতিযোগিতামূলক বিশ্ব বাণিজ্যে এগিয়ে যেতে পণ্যের মান ও দক্ষতার বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেন তিনি।

বিপিজিএমইএ সভাপতি মো. জসিম উদ্দিনে সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন, প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের চেয়ারম্যান আহসান চৌধুরী, বিপিজিএমইএ সহসভাপতি গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, সাবেক সভাপতি শামীম আহমেদ ও এস এম কামাল উদ্দিন বক্তব্য রাখেন।