July 24, 2021

Jagobahe24.com news portal

Real time news update

আশা জাগিয়েও দিন শেষে হতাশাই সঙ্গী

আশা জাগিয়েও দিন শেষে হতাশাই সঙ্গী

আশা জাগিয়েও দিন শেষে হতাশাই সঙ্গী

দুই ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে শ্রীলংকার বিপক্ষে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। হতাশায় প্রথম দিন কাটানোর পর দ্বিতীয় দিনে আক্ষেপ ঘোচানোর সম্ভাবনা দেখিয়েছিলেন বোলাররা। কিন্তু দিন শেষে সঙ্গী হয়েছে রান পাহাড়ে চাপা পরার হতাশা।

পাল্লেকেলে টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে শ্রীলংকার সংগ্রহ ৬ উইকেটে ৪৬৯ রান। 

এক উইকেটে ২৯১ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করেছিল লংকানরা। আগের দিনের সেঞ্চুরিয়ান লাহিরু থিরিমান্নে এদিন ইনিংস বড় করার দিকেই মনোযোগী ছিলেন। তবে প্রথম ঘণ্টা পেরোতেই তাসকিনের বলে উইকেটকিপার লিটন দাসের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি।

আউট হওয়ার আগে ১৪০ রান করেন থিরিমান্নে। তার জায়গায় নামা ম্যাথিউস রানের খাতা খোলার আগে তৃতীয় বলেই কট বিহাইন্ড হয়েছিলেন। তবে বাংলাদেশের কেউ আবেদন না করায় বেঁচে যান এই অলরাউন্ডার।

ভাগ্যক্রমে জীবন পেলেও তা বড় করতে পারেননি ম্যাথিউস। তাসকিনেরই বলে উইকেটের পেছনে লিটনের দুর্দান্ত ক্যাচে পরিণত হয়ে ৫ রান করে আউট হন তিনি। তার জায়গায় নামা ধনঞ্জয় ডি সিলভা মাত্র ২ রানে তাইজুলের বলে স্লিপে শান্তকে ক্যাচ দেন।

প্রথম সেশনে ২৬ ওভার হাত ঘুরিয়ে মাত্র ৪৩ রান দেয় বাংলাদেশ। দ্বিতীয় সেশনেও সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখে টাইগাররা। একপ্রান্ত আগলে রেখে ফিফটি পূরণ করেন ওশাডা ফার্নান্দো। বিপদজনক হয়ে ওঠা এই ব্যাটসম্যানকে ৮১ রানে লিটনের ক্যাচে পরিণত করেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

এর ঠিক আগের ওভারে নিশাংকাকে লো বলে বোল্ড করে ম্যাচে নিজের তৃতীয় উইকেট শিকার করেন তাসকিন। দ্বিতীয় দিনে মাত্র ৯১ রান যোগ করতেই পাঁচ উইকেট তুলে নিয়ে লংকানদের অল্প রানে বেঁধে ফেলার সম্ভাবনা জাগায় বোলাররা। কিন্তু ক্যাচ মিস ও বাজে ফিল্ডিংয়ে সেই সুযোগ আর কাজে লাগানো যায়নি।

বৃষ্টির বাধায় খেলা বন্ধ হওয়ার আগে অবিচ্ছেদ্য ৮৭ রানের জুটি গড়েন নিরোধান ডিকওয়েলা ও রমেশ মেন্ডিস। দুজনে যথাক্রমে ৬৪ ও ২২ রানে অপরাজিত আছেন।