December 5, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

টি২০ বিশ্বকাপে নতুন চ্যাম্পিয়ন বরণের অপেক্ষা

টি২০ বিশ্বকাপে নতুন চ্যাম্পিয়ন বরণের অপেক্ষা

টি২০ বিশ্বকাপে নতুন চ্যাম্পিয়ন বরণের অপেক্ষা

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে আগেই বাদ পড়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের বাদ পড়ায় এদেশের ক্রিকেট ভক্তরা হয়ে গেছেন বিভক্ত। বিশেষ করে সেমিফাইনালের চার দলকে নিয়ে হয়েছে বেশ মাতামাতি।

পুরো টুর্ণামেন্ট যেভাবে খেলেছে তাতে ইংল্যান্ড এবং পাকিস্তানের সমর্থকরা বেশ কনফিডেন্স ছিলো। ধরা হচ্ছিলো, ফাইনালে এই দুই দলেরই দেখা হবে। দুই সেমিফাইনালের খেলা দেখলেও অবাক হতে হয়। স্রেফ শেষ মুহূর্তে এসে হেরেছে পাকিস্তান এবং ইংল্যান্ড।

দুই দলের ৪০ ওভার খেলা দেখে আপনি ৩৬ ওভার পর্যন্ত তাদেরকেই সম্ভাব্য ফাইনালিস্ট ধরে নিয়েছিলেন; কিন্তু শেষ চার ওভার ছিল যেন নাটকের টুইস্ট। দুই সেমিফাইনালেই এমন টুইস্ট ছিলো, ছিলো রুদ্ধশ্বাস উত্তেজনা। শেষ পর্যন্ত টপ ফেবারিটের তকমা লাগানো পাকিস্তান-ইংল্যান্ডকে বাদই পড়ে যেতে হলো। ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে ক্রিকেটের অন্য দুই পরাশক্তি নিউজিল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়া।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে অস্ট্রেলিয়া একবার উঠলেও নিউজিল্যান্ডের জন্য এই প্রথম। ২০১০ সালে কেনসিংটন ওভালে ইংল্যান্ডের কাছে ৭ উইকেটে হেরে রানারআপ হয়েছিলো অসিরা। ওই একবারই ফাইনাল খেলেছিল তারা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা ছুঁয়ে দেখা সেবার না হলেও এবার হবে বলে আশা করছেন অ্যারোন ফিঞ্চ আর ডেভিড ওয়ার্নাররা।

কারণ সেমিতে দুর্দান্ত খেলা অ্যারোন ফিঞ্চের দল ফাইনালে মানসিকভাবে একটু হলেও এগিয়ে থাকবে। কথাটা নিউজিল্যান্ডের ক্ষেত্রেও যায়।

যদিও ১২ নভেম্বর জাগো নিউজের সংবাদ সূত্রে জানতে পারলাম, ফাইনালের আগে দল থেকে ছিটকে গেলেন ডেভন কনওয়ে। এটা কিউইদের জন্য একটি ধাক্কা। সে সাথে অস্ট্রেলিয়ার সাথে নিউজিল্যান্ডের টি-টোয়েন্টিতে ১৪ বার দেখা হয়েছে, যার মধ্যে ৯ বার অস্ট্রেলিয়া এবং ৫ বার নিউজিল্যান্ডের জয়। এ ক্ষেত্রেও অস্ট্রেলিয়া এগিয়ে আছে। তবুও ক্রিকেট সমীকরণ দিয়ে চলে না। ক্রিকেটে প্রতিনিয়ত রের্কড হয়, প্রতিনিয়ত সমীকরণ সৃষ্টি হয়।

কে জিতবে বিশ্বকাপ? কার হাতে উঠবে শিরোপা? সমীকরণ এবং রের্কডের দিকে তাকালে অস্ট্রেলিয়ার সম্ভাবনাই বেশি। তবে ফাইনালে হারের বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসার যুদ্ধে নামবে নিউজিল্যন্ডের ক্রিকেটাররা। তাই বলা যায় ক্রিকেট বিশ্ব আরও একটি উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচ দেখতে পাবে।

আমি মনে করে আবেগ দিয়ে ক্রিকেট হয় না। তাই শক্তিমত্তার বিচারে অস্ট্রেলিয়া ফেবারিট দল। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের জয় হবে সবচে বেশি আনন্দের। যে জয় ক্রিকেটের জয়।

তাহলে, এবার কী ইতিহাস গড়তে চলেছেন অস্ট্রেলিয়া! নাকি ২০১০ সালের পুনরাবৃত্তি করবে তারা? অন্যদিকে পরিসংখ্যান, রের্কড, অভিজ্ঞতার ঝুলিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে কিউইরা নিয়ে নেবেন তাদের ওয়ানডে বিশ্বকাপ খোয়ানোর মধুর প্রতিশোধ?

এসব প্রশ্নের উত্তর মিলবে আজ রাতের ফাইনাল শেষ হওয়ার পর। তবে যে দলই জিতুক, ক্রিকেট বিশ্ব পাবে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নতুন চ্যাম্পিয়ন ।