January 21, 2022

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

টেকসই শান্তি ও নিরাপত্তার লক্ষ্য অর্জনে নারীদের সম্পূর্ণ ও অর্থবহ অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে -স্পীকার

টেকসই শান্তি ও নিরাপত্তার লক্ষ্য অর্জনে নারীদের সম্পূর্ণ ও অর্থবহ অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে -স্পীকার

টেকসই শান্তি ও নিরাপত্তার লক্ষ্য অর্জনে নারীদের সম্পূর্ণ ও অর্থবহ অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে -স্পীকার

ঢাকাঃ
বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি বলেছেন, টেকসই শান্তি ও নিরাপত্তার লক্ষ্য অর্জনে নারীদের সম্পূর্ণ ও অর্থবহ অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে৷ চ্যালেঞ্জসমূহ উত্তরণ করে নিজ সক্ষমতা কাজে লাগিয়ে নারীরা বৈশ্বিক শান্তি ও নিরাপত্তা বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখতে পারে। পিবিসি জেন্ডার স্ট্রেটেজি বাস্তবায়ন, সশস্ত্র সংঘাত দূরীকরণ, শান্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে নারীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে আজকের সেমিনার উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন স্পীকার।

সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের উদ্যোগে আজ রাজধানীর কুর্মিটোলা গলফ ক্লাবে আয়োজিত ‘উইমেন পিস এন্ড সিকিউরিটি সেমিনার ২০২২’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে স্পীকার এসব কথা বলেন। এসময় স্পীকার সেমিনারের শুভ উদ্বোধন করেন।

স্পীকার বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রত্যন্ত অঞ্চল পর্যন্ত নারীদের উন্নয়নে বহুমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। নারীদের সামাজিক, অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে বর্তমান সরকার নিরলস কাজ করছে। সংসদে বর্তমানে ২৩জন সরাসরি নির্বাচিত নারী সংসদ সদস্যের পাশাপাশি ৫০জন সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য রয়েছে। নারীদের অধিকার প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি নারীদের অর্থনৈতিক কার্যক্রমে সম্পৃক্তকরণে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। লিঙ্গ বৈষম্য দূরীকরণ ও সমতাভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় নারীদের এগিয়ে নিতে সকলকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান স্পীকার।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, যেকোন দুর্যোগে নারীরা বৈষম্যের শিকার হয়ে থাকে। কোভিডকালীন সময়েও নারীরা অনেক দুর্ভোগ ও নির্যাতনের শিকার হয়েছে যা অপ্রত্যাশিত। নারী নির্যাতন, লিঙ্গ বৈষম্য ও সামাজিক অসমতাকে জোরালোভাবে প্রতিরোধ জরুরি। কেননা, অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক উন্নয়ন নারীদের পেছনে রেখে সম্ভব নয়। ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই সমতাভিত্তিক বৈশ্বিক লক্ষ্য অর্জনে নারীরাই পরিবর্তনের সক্রিয় এজেন্ট।

সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দিপু মনি এমপি বক্তব্য রাখেন। ল্যাফটেনেন্ট জেনারেল ওয়াকারুজ্জামান, ল্যাফটেনেন্ট জেনারেল মাহফুজুর রহমান, ড. মোঃ তৌহিদুল ইসলাম, ড. রাসেদ উজ জামান, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মসিউর রহমান, ড. রুবানা হক, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাজমা বেগম, সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি নাইমা হায়দার প্রমুখ সেমিনারে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কর্মকর্তাগণ ও গণমাধ্যমকর্মীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।