September 21, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

ভ্যাকসিন নিলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

ভ্যাকসিন নিলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

ভ্যাকসিন নিলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

করোনাভাইরাস নির্মূল করতে সবাইকে মাস্ক ব্যবহার এবং হাত ধোয়া অব্যাহত রাখতে নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, একটা নির্দেশনা হলো সবাইকে মাস্ক পরতে হবে। মাস্ক ব্যবহার করা এবং এর সাথে হাত ধোয়া অব্যাহত রাখতে হবে। এমনকি ভ্যাকসিন যারা নিয়েছেন, তাদেরকেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সোমবার সকালে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে সভাপতিত্বকালে সভার প্রারম্ভিক আলোচনায় এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে এবং মন্ত্রিপরিষদ সদস্যরা সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষ থেকে ভার্চুয়ালি বৈঠকে অংশ নেন।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী টিকা প্রদানকে আরো সহজিকরণের ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, এখন আমার মনে হয় একটু ওপেন করে দিয়ে যত তাড়াতাড়ি দেয়া যায় তত ভালো। কারণ একবার দিয়ে আবার নেক্সট ডোজের জন্য তৈরি হতে হবে।

টিকা গ্রহণকারীদের পরিচয়পত্র প্রদানের ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটা আইডি কার্ডের মতো থাকতে হবে কারা ভ্যাকসিন নিলো। এটা দেখিয়ে দ্বিতীয় ডোজ নিতে হবে এবং সেই আইডেন্টিটিটা তাদের কাছে থেকে যাবে। তাহলে বিদেশে গেলে ভ্যাকসিন নেয়া আছে সেই প্রমাণ থাকবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, টিকা নেয়ার বিষয়ে গ্রামাঞ্চলের মানুষের মাঝে এখনও একটু দ্বিধা থাকলেও সেটা চলে যাবে ইনশাআল্লাহ।

তিনি বলেন, ভ্যাকসিনের সেকেন্ড ডোজের জন্য ৮ থেকে ১২ সপ্তাহ সময় লাগতে পারে। লন্ডনে সেভাবেই দেয়া হচ্ছে। এজন্য ১৫ দিনের মধ্যে সেকেন্ড ডোজের টিকা যে নিতে হবে তা নয়, অন্তত তিন মাস পর্যন্ত এ কার্যকারিতা থাকে। এই সময়ের মধ্যে সেকেন্ড ডোজ নেয়া যায়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা চাচ্ছি দ্রুত সেকেন্ড ডোজ দিয়ে দেয়ার। আমি বলেছি এক বা দুই মাসের মধ্যে সেকেন্ড ডোজ দিয়ে দিতে। কারণ ভ্যাকসিনের যেন ডেট পেরিয়ে না যায় সেটাও দেখতে হবে।

তিনি বলেন, আমাদের বিভিন্ন বাহিনী এবং পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের জন্য টিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এজন্য পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের নিয়ে এসে তাদের দ্রুত ভ্যাকসিন দিতে হবে এবং এটা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বলে দিতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সারাদেশের যত পরিচ্ছন্নতাকর্মী রয়েছেন তাদের সবাইকে এই টিকা দিতে হবে।

তিনি বলেন, যারা ফ্রন্টলাইনার তাদের আগে দিতে হবে। এর মধ্যে চিকিৎসক বা চিকিৎসার সঙ্গে সম্পৃক্ত যারা, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ অন্যান্য বাহিনীগুলো এবং যারা এই কোভিড মোকাবিলায় সক্রিয় তাদের আগে দিতে হবে।