October 24, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

সিলেটে ২৮তম গ্যাসক্ষেত্রের সন্ধান

সিলেটে ২৮তম গ্যাসক্ষেত্রের সন্ধান

সিলেটে ২৮তম গ্যাসক্ষেত্রের সন্ধান

সিলেটের জকিগঞ্জে নতুন গ্যাসক্ষেত্রের সন্ধান পেয়েছে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম এক্সপ্লোরেশন অ্যান্ড প্রোডাকশন কোম্পানি (বাপেক্স)। এটি দেশের ২৮তম গ্যাসক্ষেত্র হতে যাচ্ছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় উপজেলার পশ্চিম আনন্দপুর গ্রামে অনুসন্ধান কূপে ডিএসটি (ড্রিল স্টিম টেস্ট) সৌভাগ্য শিখা জ্বালাতে সক্ষম হয়েছে কোম্পানিটি।

পরীক্ষামূলক প্রতিটি ধাপে ‘পজিটিভ’ আলামত পাওয়া গেছে। তবে এটিকে আনুষ্ঠানিকভাবে গ্যাসক্ষেত্র বলছেন না বাপেক্স কর্মকর্তারা।

তারা জানান, অনেক সময় অনুসন্ধান কূপে পকেট থাকতে পারে। তাই পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। চূড়ান্তভাবে সফল হলে কূপটি গ্যাসক্ষেত্র হিসেবে ঘোষণা করা হবে।

কূপটির অভ্যন্তরে চাপ রয়েছে ছয় হাজার পিএসআই (প্রতি বর্গ ইঞ্চি) আর ফ্লোটিং চাপ রয়েছে ১৩ হাজারের অধিক। প্রথমত একটি স্তরের পরীক্ষা চলমান। কূপটিতে মোট চারটি স্তরে গ্যাস পাওয়ার সম্ভাবনা দেখছে বাপেক্স।

বাপেক্সের ফিল্ড ম্যানেজমেন্ট উপবিভাগের উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. মঞ্জুরুল হক বলেন, এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না। কূপটির বাইরে পরীক্ষার কয়েকটি ধাপ রয়েছে। সব ধাপে সফলতা এলে কিছু বলতে পারব। আপাতত অনুসন্ধান কূপটি পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

দেশে এ পর্যন্ত ২৭টি গ্যাসক্ষেত্র আবিষ্কৃত হয়েছে। এসব গ্যাসক্ষেত্রে প্রমাণিত মজুতের পরিমাণ ২১ দশমিক ৪ টিসিএফ, আরো ছয় টিসিএফ রয়েছে সম্ভাব্য মজুত। এর মধ্যে প্রায় সাড়ে ১৮ টিসিএফ তোলা হয়েছে। সে হিসাবে প্রমাণিত মজুত অবশিষ্ট রয়েছে মাত্র তিন টিসিএফ, আর সম্ভাব্য মজুত রয়েছে আরো সাত টিএসএফ’র মতো।