December 4, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

না ফেরার দেশে কবরী

না ফেরার দেশে কবরী

মারা গেলেন বরেণ্য অভিনেত্রী কবরী

বাংলার অন্যতম অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী মারা গেছেন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৩ দিনের মাথায় তিনি মারা যান (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

শুক্রবার রাত ১২টা ২০ মিনিটে রাজধানীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। বিষয়টি নিশ্চিত করেন কবরীর ছেলে শাকের চিশতী।

৫ এপ্রিল দুপুরে ঢাকাই সিনেমার মিষ্টি মেয়ে খ্যাত অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরীর করোনা পজিটিভ আসে। ওই রাতেই তাকে ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চলছিল চিকিৎসা। কিন্তু ৭ এপ্রিল রাত থেকেই তার অবস্থার অবনতি হতে থাকে। পরদিন দুপুরে তাকে শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। বৃহস্পতিবার বিকেলে তাকে লাইফ সাপোর্ট নেয়া হয়। সেখানেই রাতে তিনি মারা যান।

১৯৬৩ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে নৃত্যশিল্পী হিসেবে মঞ্চে আবির্ভাব কবরীর। ১৯৬৪ সালে ‘সুতরাং’ ছবি দিয়ে চলচ্চিত্রে নাম লেখান তিনি। ছবিটি পরিচালনা করেন সুভাষ দত্ত। এরপর ‘বাহানা’’, ‘তিতাস একটি নদীর নাম’, ‘রংবাজ’, ‘সারেং বউ’, ‘সুজন সখী’সহ অনেক কালজয়ী সিনেমা উপহার দিয়েছেন বরেণ্য এই অভিনেত্রী।

সরকারি অনুদানের ‘এই তুমি সেই তুমি’ সিনেমা পরিচালনা করছেন কবরী। সম্প্রতি ছবিটির শুটিং শেষ হয়েছে, চলছে সম্পাদনার কাজ। ২০০৬ সালে কবরী পরিচালিত প্রথম ছবি ‘আয়না’ মুক্তি পায়।

২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ থেকে জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন কবরী। চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি। জন্মস্থান বোয়ালখালী হলেও শৈশব ও কৈশোর বেড়ে ওঠা চট্টগ্রাম নগরীতে।