May 15, 2021

Jagobahe24.com news portal

Real time news update

ফিলিপাইনের জাদুঘরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি

ফিলিপাইনের জাদুঘরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি

ফিলিপাইনের জাদুঘরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি

কাঠের ওপর খোদাই করা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও ফিলিপাইনের জাতীয় বীর ডা. হোসে রিজালের প্রতিকৃতি। মহান দুই নেতার পোট্রেটের পাশাপাশি লাল রঙের আবহ মানুষ। খোদাই করা শিল্পটিতে জনগণের জন্য দুই নেতার আত্মোৎসর্গকে প্রতিফলিত করা হয়েছে সুন্দর কারুকার্যের মাধ্যমে। কাঠের তৈরি যৌথ প্রতিকৃতি সংবলিত এমনই একটি শিল্পকর্ম ফিলিপাইনের কালাম্বা শহরের একটি জাদুঘরে উন্মোচন করা হয়েছে।

মহান দুই নেতার এই শিল্পকর্মটি ফিলিপিনো শিল্পী নিকোলাস পি আকা জুনিয়র খোদাই করেছেন। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উদযাপনের অংশ হিসেবে এই শিল্পকর্মটি ফিলিপাইনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে হোসে রিজাল জাদুঘরে উপহার হিসেবে প্রদান করা হয়েছে। সম্প্রতি রিজাল জাদুঘরে শিল্পকর্মটি উদ্বোধন করেন ফিলিপাইনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আসাদ আলম সিয়াম এবং হোসে রিজাল জাদুঘরের কিউরেটর যারাহ এসকুয়েতা।

২০১৮ সালে এশীয় চারুকলা প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করার উদ্দেশে বাংলাদেশ সফর করেন নিকোলাস। সে সময় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর ভ্রমণ করার পর হোসে রিজাল ও বঙ্গবন্ধুর জীবনের মধ্যে তিনি সাদৃশ্য খুঁজে পান তিনি। যা তাকে এই শিল্পকর্মটি সৃষ্টির অনুপ্রেরণা দিয়েছে জানান নিকোলাস।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ফিলিপাইনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সিয়াম বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও হোসে রিজাল বাংলাদেশ ও ফিলিপাইনের মহান দুই নেতা যারা ইতিহাসের সম্পূর্ণ ভিন্ন সময়ে এবং ভিন্ন প্রেক্ষাপট থেকে নিজ দেশের জনগণকে পরাধীনতা থেকে মুক্তির স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন এবং তাদের অতুলনীয় দূরদর্শী নেতৃত্বেই দেশ দুটি মুক্তির সোপান বেয়ে পরাধীনতার শৃঙ্খল থেকে মুক্তি পায়। তিনি আশা প্রকাশ করেন, শিল্পকর্মটি দর্শনার্থীদের দুই দেশের মুক্তি সংগ্রামের ইতিহাস ও সেই স্বপ্নযাত্রায় এই দুই মহান নেতার আত্মত্যাগের মধ্যে যে অবিশ্বাস্য সাদৃশ্য রয়েছে, তা তুলে ধরবে।

প্রসঙ্গত, এই শিল্পকর্ম উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে রিজাল জাদুঘরে জাতির পিতার ওপর দুই মাসব্যাপী এক প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। যেখানে উক্ত শিল্পকর্মের পাশাপাশি জাতির পিতার আত্মজীবনী, তার ওপর রচিত বিখ্যাত কিছু বই, ঐতিহাসিক ছবিসহ অন্যান্য চিত্রকর্ম প্রদর্শিত হবে। প্রদর্শনী শেষে শিল্পকর্মটি দূতাবাসের উপহার হিসেবে জাদুঘরের স্থায়ী সংগ্রহশালায় সংরক্ষিত থাকবে।