April 11, 2021

Jagobahe24.com news portal

Real time news update

‘‘অভাব”-শারমিন আকতার সুমি

‘‘অভাব”-শারমিন আকতার সুমি

‘‘অভাব”-শারমিন আকতার সুমি

অভাব গরীবের ঘরে জন্মনিলি তুই বড় অভাবী;
সবার জীবন খেয়ে ফেলবি রাক্ষসী।
নেই ঘরে চাল, নেই কোন ডাল;
দুঃখের জীবন নিয়ে, কোথায় চলবো বল।
পুত্র,কন্যা ক্ষুধার জ্বালায় ছটফট করে চলে;
অভাব থাকলে দুঃখ আসে এটা সবাই জানে।
একদিকে সমাজ হাসে মোদের দুরাশে দেখে;
বিপদ আসে বারে বারে বিধাতা রক্ষা করো মোরে ।
ছয়দিন ধরে অনাহারী, স্ত্রী, সন্তানেরে নিয়ে;
রান্নাঘরে শুকনো থালা দেখে দুচোখে পানি গড়ে।
অভাবীরে তুই কেন এলি আমার ঘরে;
তোর কারনে সবার পেটে আগুন যে জ্বলে ।
অবশেষে একদিন বাহির হলাম সবাই মিলে;
বড় বাবুদের কাছে হাত পাতলে শালা বলে ডাকে।
দিন শেষে জুটলো একমুটো খাবার;
এভাবেতেই দিন চলে যায়।
আবার এসে আঘাত হানলো নিঃস্ব করে দিল বুক;
নিমিসেই হারিয়ে গেলাে কুড়ে ঘরের সব সুখ।
পুত্র, কন্যা মরে পড়ে রইল ঘরের দাওয়ায়;
পাড়া প্রতিবেশি বলে উঠলো হায় হায়।
অভাব থাকলে সংসারেতে এ রকমেই হয়;
দুঃখ বেদনায় চারিদিকে বিষাক্ত শ্বাস বয়।
মনের মাঝেতে জাগল চেতনা, পাল তুললো শক্তি;
খোদার দরবারে দু’হাত তুলে করি আমি ভক্তি।
আসেনা যেন কারো কুড়ে ঘরেতে এই অভাবী;
সবার মাঝেতে ঝলমলিয়ে উঠুক নতুন দিনের রবি।
এই আর্শীবাদ করি আমি বিশ্ববাসীকে;
ধন্য হবে নতুন জীবন, ফুটবে হাসি অবশেষে।
এইতো চাওয়া, এইতো পাওয়া সবার তরে;
অভাব আছে বলেই সুন্দর জীবন হবে।