January 28, 2022

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

গাইবান্ধায় ১৭ ইউপির মাত্র ৪টিতে আ.লীগের জয়

গাইবান্ধায় ১৭ ইউপির মাত্র ৪টিতে আ.লীগের জয়

আগামীকাল খানসামা উপজেলায় ইউপি নির্বাচন

ফারু কআহম্মেদ খানসামা দিনাজপুর প্রতিনিধি

দিনাজপুরের খানসামায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন আগামীকাল রবিবার ভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছে খানসামা উপজেলার ইউনিয়নগুলোতে। উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মোট ৩৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে আওয়ামীলীগ সমর্থিত ছয়জন এবং ২৮ স্বতন্ত্র রয়েছেন, যারা বিএনপি, জামায়েত, জাতীয়পাটি’র সমর্থক। এছাড়াও রয়েছে প্রকৃত স্বতন্ত্র প্রার্থী ।
খানসমা উপজেলার ৫৪টি ভোট কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক ও নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণেআইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা সর্বক্ষণ কাজ করছে। নির্বিঘ্নে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটাররাভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন। সু
ষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দিতে প্রস্তুত রয়েছে প্রশাসন। অন্য দিকে নাম প্রকাশে অইচ্ছুক একাধিক স্বতন্ত্র প্রার্থী বলেন, আওয়ামীলীগপ্রার্থীর লোকজন তাদের সমর্থক ও ভোটারদেরবিভিন্নভাবেনির্বাচনী কাজে বাধা ও হুমকি প্রদান করেছেন।
এরপরও প্রশাসন নিরপেক্ষ থাকলে খানসামা উপজেলায় বেশিভাগ আমরাই বিজয়ী হবে। জানা গেছে, এই নিবাচনে খানসামা উপজেলায় মোট ভোটার ১ লক্ষ ৩৪ হাজার ৬৭৬ জন ।
কাল ২৬ ডিসেম্বর উপজেলার ৫৪টি কেন্দ্রে এই ভোট অনুষ্ঠিত হবে। মেম্বার ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদের প্রার্থীদের রাজনৈতিক প্রতীক না থাকায় স্থানীয় পর্যায়ে জনপ্রিয়তার মাধ্যমেই সদস্যরা যে যার মতো করে ভোটাদের কাছে ভোট চাইছেন।
ভোটাররাও বলছেন প্রার্থীদের সার্বিক যোগ্যতা বিচার করে ভোট দেবেন। খানসামা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিম বলেন, খানসামা উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দর করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।
নির্বাচনীআচরণবিধিনজরদারির জন্য ম্যাজিস্ট্রেট কাজ করেছেন। এরই মধ্যে নির্বাচনীমালামাল এসে পৌঁছেছে খানসামায়। নির্বাচন কেন্দ্রগুলোর নিরাপত্তা জোরদারের জন্য প্রস্তুতি সম্পন্ন।
তিনি আরো বলেন, অবাধ-নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য প্রার্থী ও ভোটারের সহযোগিতা প্রয়োজন।ইতোমধ্যেই প্রস্তুতি নিয়েছে নির্ধারিত বৈাট কেন্দ্রগুলো। প্রার্থীরা নিজ নিজ কেন্দ্রগুলোকে সাজিয়েছেন নিজের মতো করে। ছেয়েগেছেপ্রার্থীদেরপোষ্টার দিয়ে। এখন অপেক্ষা রাত শেষেই ভোট