May 14, 2021

Jagobahe24.com news portal

Real time news update

কালীগঞ্জে হাসপাতালে বেড়েই যাচ্ছে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত শিশুরোগী!

কালীগঞ্জে হাসপাতালে বেড়েই যাচ্ছে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত শিশুরোগী!

কালীগঞ্জে হাসপাতালে বেড়েই যাচ্ছে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত শিশুরোগী!

ঝিনাইদহ-
ঝিনাইদহ কালীগঞ্জে ডায়রিয়া,নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিন শিশুরোগী ভর্তি হচ্ছে হাসপাতালে। গত ২৪ ঘন্টায় ২৬ জন শিশু ভর্তি হয়েছে। যাদের অধিকাংশের বয়স ০-৫ বছরের মধ্যে। চিকিৎসকরা বলছে আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে এই রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সুত্র জানিয়েছে গত দু,সপ্তাহ ধরে এ ধরনের শিশু রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। তাদের কে দেওয়া হচ্ছে উন্নত মানের সেবা। সার্বক্ষনিক তদারকি করছেন কর্তব্যরত ডাক্তার ও উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা: শামিমা শিরিন লুবনা। ডায়রিয়া রোগিদের সেবা প্রদানের জন্য সকল প্রকার ওষুধ, স্যালাইন রয়েছে। শুধু মাত্র এ্যান্টিবাই ওষুধ হাসপাতালে না থাকার কারণে দিতে পারছে না। সব রোগিদের প্রয়োজন হচ্ছে না যাদের জন্য প্রয়োজন তাদের ক্ষেত্রে এটা বাইরে থেকে কিনতে হচ্ছে। অভিভাবকরা জানান, তাদের বাচ্চাদের হঠাৎ করে ডায়রিয়া শুরু হয়েছে। বাধ্য হয়ে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। শিশুদের একনাগাড়ে পাতলা পায়খানা হচ্ছিল এ কারণে হাসপাতালে ভর্তি করেছি। অভিভাবক লিমা খাতুন জানান, তার শিশুর হঠাত করেই ঠান্ডা ও পাতলা পায়খানা শুরু হয় পরে তারা হাসপাতালে ভর্তি করেন। তাদের মতো অনেকে শিশুকে হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছে। কালীগঞ্জ হাসপাতালে ডায়রিয়া রোগিদের জন্য রুম ও বেড আলাদা করা হয়েছে। তন্মধ্যে শিশুদের জন্য ও আলাদা রুম রাখা হয়েছে। কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা: শামিমা শিরিন লুবনা জানান, দু, সপ্তাহ ধোরে হাসপাতালে প্রতিদিন ১৫ থেকে ২০ জন শিশু রোগী ভর্তি হচ্ছে। কিন্তু বর্তমানে এ দু,দিন ২৬ জন শিশু রোগী ভর্তি রয়েছে। প্রতি নিয়ত শিশু রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। তিনি জানান মুলত আবহাওয়ার কারণে শিশুরা কোল্ড ডায়রিয়া এবং নিওমোনিয়াতে আক্রান্ত হচ্ছে। এ সময় শিশুদের একটু যতœ সহকারে রাখতে হবে। তবে আতঙ্কিত হবার কিছু নেই। বিশেষ করে গত এপ্রিল মাস থেকে থেকে হঠাৎ করেই কালীগঞ্জে ডায়রিয়ার প্রকোপ শুরু হয়ে রোগের তীব্রতা বেড়ে যায়। ডায়রিয়া ওয়ার্ডে স্থান সংকুলান না হওয়ায় রোগীদের অনেক সময় হাসপাতাল করিডোরের মেঝেতে রাখতে হচ্ছে। এ অবস্থায় চিকিৎসা দিতে রীতিমতো হিমশিম খাচ্ছেন নার্স, চিকিৎসক এবং কর্মচারীরা। ডায়রিয়ার পাশাপাশি শিশুদের এখন কাশি হয়েছে, সম্পুর্ন সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত চিকিৎসকরা থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা: শামিমা শিরিন লুবনা জানান, আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে ডায়রিয়া রোগী বেড়েছে। এ সময়ে শিশুদের প্রতি যতœশীল থাকতে হবে। পাতলা পায়না ও বমি শুরু হলে শিশুকে মুখে খাবার স্যালাইন বার বার খাওয়ানো ও মায়ের বুকের দুধও খাওয়াতে হবে। প্রয়োজনে হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেন তিনি। এছাড়া খোলা ও বাসি খাবার পরিহারের পাশাপাশি সব সময় হাত পরিষ্কার রাখারও পরামর্শ দেন এই চিকিৎসক।