December 1, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

ঘোড়াঘাটে উপজেলায় সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ বিধি বহির্ভূত ভাবে প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক একাউন্ট হতে টাকা উত্তোলন ॥

ঘোড়াঘাটে উপজেলায় সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ বিধি বহির্ভূত ভাবে প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক একাউন্ট হতে টাকা উত্তোলন ॥

ঘোড়াঘাটে উপজেলায় সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ বিধি বহির্ভূত ভাবে প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক একাউন্ট হতে টাকা উত্তোলন ॥


মোঃ আফজাল হোসেন, দিনাজপুর প্রতিনিধি:
দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ সরকার মনিরুল ইসলাম বিধি বহির্ভূতভাবে প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক একাউন্ট হতে টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেছে বলে এক লিখিত অভিযোগে জানা গেছে। জানা যায়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নীতিগত সিদ্ধান্তে ঘোড়াঘাট ডিগ্রী কলেজ ২০১৬ইং সালে জাতীয় করণের চুড়ান্ত তালিকা প্রকাশ হয়। এমতাবস্থায় কলেজের আর্থিক বিষয় সহ অন্যান্য কার্যাদি সম্পাদনের জন্য (সূত্র) মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর কর্তৃক প্রতিষ্ঠান পরিচালনার ক্ষেত্রে একটি আদেশ জারী হয়। যার স্মারক নং ০৩.০০১.০০০.০০.০০.০১.২০১৬-৬৮, তারিখ- ০৯/১০/২০১৬ ইং হতে নিয়োগ, স্থাবর, অস্থাবর সম্পদ হস্তান্তর ও অর্থ ব্যয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। শুধু প্রাতিষ্ঠানিক দৈনন্দিন কার্য সম্পাদনের জন্য ব্যয় ব্যতীত নগদ ও ব্যাংক সংরক্ষিত অর্থ উত্তোলন করা যাবে না। গত ২৭/০৮/২০১৮ ইং তারিখে কলেজটি পূর্ণাঙ্গভাবে জাতীয় করণের গেজেট প্রকাশ হয় এবং মাধ্যমিক ও উচচ শিক্ষা বিভাগ হতে সরকারীকৃত কলেজের পরিচালনা পর্ষদের কার্যক্রম বিলুপ্ত হয়েছে মর্মে আদেশ জারী হয়। যার স্মারক নং ৩৭০০.০০০.০৭০.০০২.০০৪.২০১৮-৮৮, অথচ অত্র কলেজের অধ্যক্ষ সকল সরকারি আদেশ নির্দেশ উপেক্ষা করে সরকারি কলেজের প্যাড ব্যবহার করে কলেজের কতিপয় শিক্ষক ও অফিস সহকারী সহ কলেজের প্রাচীর নির্মাণ প্রকল্প কমিটি গঠন করে নিু মানের ইট, রড, সিমেন্ট বালু ব্যবহার করে কার্য সম্পাদন করে। যা আইনগত দিকে কোন বৈধতা নাই। জানা যায়, আয়ের বেশীর ভাগ টাকাই ব্যাংকে জমা না করে নিজ হেফাজতে রেখে অধ্যক্ষ তার ইচ্ছা মাফিক ব্যয় করে আসছে। ফলে স্বেচ্ছাচারিতার বহিঃ প্রকাশ ঘটে অপর দিকে চরম অদক্ষতা। নমুনা স্বরুপ ব্যাংক ব্যালেন্স সীটে দৃশ্যমান অর্থ উত্তোলনের দালিলিক প্রমাণ প্রকৃত হিসাব হতে ২০১৬ আগষ্ট ইং সাল ১) ২০/০১/২০২১ ইং তারিখে ঈঅ ১৮১৯৫৪৯৭৬০, টাকার পরিমাণ- ২,০০,০০০/- (দুই লক্ষ) টাকা, ২) ১০/০২/২০২১ ইং তারিখ ঈঅ ১৮১৯৫৪৯৭৬২ টাকার পরিমাণ- ২,২০,০০০/- (দুই লক্ষ বিশ হাজার) টাকা, ৩) ০১/০৭/২০২১ইং তারিখ ঈঅ ১৮১৯৫৪৯৭৬৭, টাকার পরিমাণ- ২,৭৯,৪০৫/- (দুই লক্ষ উনআশি হাজার চারশত পাঁচ) টাকা, ৪) ০২/০৮/২০২১ ইং তারিখ ঈঅ ১৮১৯৫৪৯৭৭২, টাকার পরিমাণ- ২,৪৫,৭৩৯ (দুই লক্ষ পঁয়তালি¬শ হাজার সাতশত উনচলি¬শ) টাকা, ৫) ১৫/০৯/২০২১ইং তারিখ ঈঅ১৮১৯৫৪৯৭৭২, টাকার পরিমাণ- ২,৫০,০০০/- (দুই লক্ষ পঞ্চাশ হাজার) টাকা উত্তোলন করেন। এ ধরনের দূর্ণীতি অব্যাহত চলতে থাকলে প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্থ হবে বলে অভিজ্ঞ মহলের ধারনা।