September 17, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

ঠাকুরগাঁওয়ে লতা-পাতায় জড়ানো ঝুঁকিপূর্ণ বৈদ্যুতিক টাওয়ার

ঠাকুরগাঁওয়ে লতা-পাতায় জড়ানো ঝুঁকিপূর্ণ বৈদ্যুতিক টাওয়ার

ঠাকুরগাঁওয়ে লতা-পাতায় জড়ানো ঝুঁকিপূর্ণ বৈদ্যুতিক টাওয়ার

জসীম উদ্দিন ইতি ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি
ঠাকুরগাঁও পৌরশহরের বিসিক শিল্পনগরী এলাকার পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের পাশে ৩৩ হাজার ভোল্টের স্টিলের তৈরি একটি বৈদ্যুতিক টাওয়ার লতায়-পাতায় ঢেকে গিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিন ধরে টাওয়ারের এ অবস্থা হলেও নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেড ঠাকুরগাঁও (নেসকো) কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।
সরেজমিনে শুক্রবার গিয়ে দেখা যায়, ধান ক্ষেতের ভিতর দিয়ে টানা বৈদ্যুতিক লাইনের টাওয়ারটি লতায়-পাতায় ভরপুর হয়ে সম্পূর্ণ অরক্ষিত ও বিপজ্জনক অবস্থায় পড়ে রয়েছে।

স্থানীয় স্কুলশিক্ষক সাদেকুল ইসলাম বলেন, অবস্থাদৃষ্টে দেখলে মনে হয় এটি একটি গাছ। দেখতে অনেকটা গাছের মতই লাগে। কাঁচা লতা-পাতায় জড়ানো এ খুঁটি সটসার্কিটের মাধ্যমে যে কোন সময় বড় দুর্ঘটনা ঘটাতে পারে। কিন্তু দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও বিদ্যুৎ বিভাগের সেখানে কোনো নজরদারি নেই।
স্থানীয় কৃষক নূর ইসলাম জানান, এ টাওয়ারের কাছ দিয়ে চলাফেরা করা ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। এখানে এবার আমন ধান লাগানো হয়েছে। মাঠে কৃষকরা এর পাশ দিয়ে চলাফেরা করছেন। যদি অসাবধানতার কারণে বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে জড়ানো এ সব লতা-পাতায় মানুষের স্পর্শ লেগে তাঁর প্রাণ চলে যায়, এর দায়ভার কে নেবে? এ বিষয়ে নেসকো কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার অবহিত করা হয়েছে। কিন্তু এখনো তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি।
বিদ্যুৎ বিভাগে কর্মরত সায়েদ আলী নামে এক লাইনম্যান বলেন, এ টাওয়ারের তার কয়েক ফুট দূর থেকে শক করতে পারে। পোলটি চরম ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছে।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে নেসকোর ঠাকুরগাঁওয়ের অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা (ভারপ্রাপ্ত) নির্বাহী প্রকোশলী মামুনুর রশিদ আরটিভি নিউজকে বলেন, কয়েকদিন আগে ওই টাওয়ারে গাছের লতা-পাতা জড়িয়ে যাওয়ার বিষয়টি দেখেছি। লাইনম্যানকে বলে দিয়েছি দ্রুত লতা-পাতা অপসারণ করতে।