December 2, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

দিনাজপুরে মতবিনিময় সভায় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক গোলাম ফারুক

দিনাজপুরে মতবিনিময় সভায় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক গোলাম ফারুক

দিনাজপুরে মতবিনিময় সভায় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক গোলাম ফারুক

শিক্ষার্থীদের একাডেমিক শিক্ষা হবে স্বাস্থ্যের পরে


খায়রুন নাহার বহ্নি,বীরগঞ্জ(দিনাজপুর)প্রতিনিধিঃ গতানুগতিক শিক্ষা থেকে বেরিয়ে এসে আমাদের শিক্ষার বিকেন্দ্রীয়করণ করতে হবে উল্লেখ করে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক বলেছেন, শিক্ষার্থীরা অনেক দিন পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ করেছে। তাই আমাদের মূল গুরুত্ব দেয়ার বিষয়টি হচ্ছে স্বাস্থ্য। একাডেমিক বিষয়টি থাকবে। কিন্তু শিক্ষার্থীদের একাডেমিক শিক্ষা হবে স্বাস্থ্যের পরে। স্বাস্থ্য সুরক্ষায় বিষয়টি হচ্ছে আমাদের প্রধান বিষয় এবং সেটা শিক্ষকরা পালন করেছেন। করোনা অতিমারী ও মহামারীর কারণে দীর্ঘদিন বিদ্যালয় থেকে দূরে থাকার ফলে শিক্ষার্থীরা মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যায় ভুগছে। ফলে এখন পাঠদানের চেয়ে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যের উপর গুরুত্ব দিতে হবে। শিক্ষক হিসেবে শিক্ষার্থীর স্বাস্থ্য সুরক্ষায় যুগোপযোগী ও মানসম্মত যে কৌশলগুলো নেওয়া দরকার সেগুলো নিতে হবে।
১৬ অক্টোবর শনিবার দিনাজপুর শিল্পকলা একাডেমী অডিটোরিয়ামে জেলা শিক্ষা অফিসের আয়োজনে শিক্ষার্থীদের কৈশোরকালীন পুষ্টি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচ্ছন্নতা (স্বাস্থ্যবিধি সম্মত), অ্যাসাইনমেন্ট ও চলমান শ্রেণী কার্যক্রম বিষয়ে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক এ কথা বলেন।
জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকী’র সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা রংপুর অঞ্চলের পরিচালক প্রফেসর এস এম আব্দুল মতিন লস্কর, দিনাজপুর সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আবু বকর সিদ্দিক, দিনাজপুর সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. ছাইয়েদুল হক,বীরগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ড.এ.কে.এম. মাসুদুল হক, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (প্রশিক্ষণ) মো. মাজহারুল হক মাসুদ, ইউনিসেফ এর নিউট্রেশন অফিসার ডা. আইরিন আকতার চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা রংপুর অঞ্চলের উপ-পরিচালক মো. আখতারুজ্জামান, দিনাজপুর জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক আখতারা পারভীন, চিরিরবন্দর খোচনা এস.সি স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ও দিনাজপুর জেলা শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. আহসানুল হক মুকুল। স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা শিক্ষা অফিসার মো. রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।
এর আগে করোনাকালীন সময়ে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করতে দিনাজপুরের স্কুল এবং কলেজের সার্বিক ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক। শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দিনাজপুরে করোনা মহামারী পরবর্তী স্কুল এবং কলেজের সার্বিক ব্যবস্থাপনা পরিদর্শনে এসে দিনাজপুর সরকারী কলেজ, সরকারী মহিলা কলেজসহ ৫টি কলেজ এবং শহরের ৭টি বিদ্যালয়ের সার্বিক ব্যবস্থাপনা সরেজমিন ঘুরে দেখেন। এসময় তিনি স্কুল এবং কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য স্যানিটেশন আইসোলেশন ও বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির কর্মকান্ড সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা হচ্ছে কিনা তার খোঁজ খবর নেন।