January 21, 2022

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

পঞ্চম ধাপে আগামী ৫ জানুয়ারী চাঁদখানা ইউপি নির্বাচন আচরণ বিধি মানছেন না কেউ

পঞ্চম ধাপে আগামী ৫ জানুয়ারী চাঁদখানা ইউপি নির্বাচন আচরণ বিধি মানছেন না কেউ

পঞ্চম ধাপে আগামী ৫ জানুয়ারী চাঁদখানা ইউপি নির্বাচন আচরণ বিধি মানছেন না কেউ


কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ নীলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী ৫ জানুয়ারী বুধবার পঞ্চম ধাপে ইউপি নির্বাচন। নির্বাচনকে ঘিরে চাঁদখানা ইউনিয়নে বিভিন্ন ওয়ার্ডে ঘুরে ঘুরে দেখা যায় বাড়ির দেওয়ালে, গাছে ও বিভিন্ন স্থানে প্রার্থীদের মার্কাসহ ছবি আটা দ্বারা লাগিয়ে দিয়েছে।
নির্বাচনি আচরণ বিধির ৮ এর উপবিধির (৮) এর সংঞ্জা অনুযায়ী পোস্টার, লিফলেট বা হ্যান্ডবিল ব্যবহার সংক্রান্ত বাধা-নিষেধ এ  বলা আছে কোন প্রার্থী বা প্রতিদন্ধী প্রার্থী বা তাহার পক্ষে অন্য কোন ব্যক্তি, সংস্থা বা প্রতিষ্ঠান বা রাজনৈতিক দল নির্বাচনি এলাকায় অবস্থিত দেওয়াল বা যানবাহনে পোস্টার লিফলেট বা হ্যান্ডবিল লাগাইতে পারিবেন না। 

কিন্তু এ আচরণ বিধি কেউ মানছেন না, দেওয়ালে, ঘরের বেড়ায়, এমনকি মসজিদেও পোস্টার লাগানো রয়েছে। সতন্ত্র চেযারম্যান পদপ্রার্থী নাজিমুদ্দিন আলম সবুজ দুটি পাতা মার্কার প্রার্থী তিনি চাঁদখানা আলুপাড়া গ্রামের মসজিদে দেওয়ালে তার ছবিসহ দুটি পাতা মার্কার পোস্টার লাগিয়েছেন। যেখানে দেওয়ালে লাগা নিষেধ তিনি মুসুলমানদেন পবিত্র স্থান মসজিদে তার নিজের ছবি সহ দুটি পাতা মার্কার পোস্টার লাগিয়েছেন যা আচরণ বিধি শুধু লঙ্ঘন নয় ধর্মীয় ভাবে মানুষের মনে আঘাত ফেলেছে। নাম প্রকাশে অনেচ্ছুক অনেকে এ ঘটনাটিকে নিন্দা জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে নাজিমুদ্দিন আলম সবুজের সাথে কথা বললে তিনি বলেন আমি কোন মন্তব্য করতে পাড়ছিনা, আমাকে আচরণ বিধির একটি বই দিয়েছে নির্বাচন অফিসার আমি বইটি পড়িনি। হয়তো ছেলে-পেলেরা লাগাতে পারে। বিষয়টি দেখছি।
একই ঘটনা ঘটিয়েছেন সাবেক চেয়ারম্যান হাফিজার রহমান হাফি ঘোরা মার্কা, কারণ তিনি গতবারে ঐ ইউপির চেয়ারম্যান ছিলেন। জানার পড়েও তিনি কাজটি করেছেন।কিন্তু তার মুঠোফোন বন্ধ থাকায়া তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। 
ধনঞ্জয় রায় শিবু মোটরসাইকেল মার্কা, শফিকুল ইসলাম শফিক লাঙ্গল মার্কা, ভূবন মহন্ত চশমা মার্কা সকলেই চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সকলেই একই কাজ করেছেন তাদের সাথে কথা হলে তারা অন্যের কথা বলন। চশমা মার্কার প্রার্থী ভূবন রায় বলেন তার অজান্তে হয়ে গিয়েছে।
সংরক্ষিত মহিলা সদস্য প্রার্থী এক, দুই, তিন নং ওয়ার্ডের ছাবিনা বেগম মাইক মার্কা, কল্পনা বেগম ক্যামেরা মার্কা, সকলেই এভাবে পোস্টার লাগিয়েছে।
এক নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী হাসানুর রহমান তালা মার্কার মেম্বার প্রার্থী তিনি ও এভাবে গাছে,দেওয়ালে ও অন্যান্য স্থানে পোস্টার লাগিয়েছেন। তার সাথে কথা হলে তিনিও একই কথা বলেন। নির্বাচন আচরণ বিধির বইয়ের কথা বললে তিনি বলেন বই পেয়েছি। কিন্তু বইয়ের মধ্যে কি আছে যানেন না। ওই ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী সিরাজুল ইসলাম টিউবয়েল মার্কা, লুৎফর রহমান ফ্যান মার্কা সকলের একই অবস্থানে।
এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অফিসার রফিকুল ইসলাম বলেন খুব দ্রুত মেজিট্রেট দিয়ে এ সব নিয়ন্ত্রন করা হবে।