August 5, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

পীরগঞ্জে ব্যক্তি মালিকানাধীন জমিতে গুচ্ছগ্রাম করার চেষ্টা কেন ?

পীরগঞ্জে ব্যক্তি মালিকানাধীন জমিতে গুচ্ছগ্রাম করার চেষ্টা কেন ?

পীরগঞ্জে ব্যক্তি মালিকানাধীন জমিতে গুচ্ছগ্রাম করার চেষ্টা কেন ?

পীরগঞ্জ(রংপুর) প্রতিনিধিঃ অভিযোগ গুরুতর! পীরগঞ্জ উপজেলায় ব্যক্তিমালিকানাধীন জমিতে গুচ্ছগ্রাম করার চেষ্টা চলছে। বিষয়টি অবগত হবার পরও স্থানীয় প্রশাসন জমির মালিকানা সংক্রান্ত বিষয়টি খতিয়ে না দেখে তড়িঘড়ি করে কাজ করছে কেন জনমনে প্রশ্ন।
বিজ্ঞ ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনাল, রংপুর-এ মোকদ্দমা বিচারাধীন জমিতে গুচ্ছগ্রাম কতটা আইন শুদ্ধ?
জমির মালিক পীরগঞ্জ উপজেলার ৫ নং মদনখালী ইউনিয়নের কাদিরাবাদ গ্রামের মৃত তোফাজ্জল হোসেন সরকারের পুত্র মোঃ মোয়াজ্জোম হোসেন জানান ,তিনি ও মৃত গেন্দা শেখের পুত্র আ: মান্নান উভয়ে নিম্ন তফশীল বর্ণিত সম্পত্তি এস.এ ১২ খতিয়ানের মালিক ইয়াজুল হক এর নিকট থেকে বিগত ৩০-০৪-১৯৯৭ইং তারিখে ৪৪৭৩ নম্বর রেজি: দলিলমুলে এবং ১৬-০৭-২০০১ইং তারিখে ৬৫৪২ নম্বর রেজিষ্ট্রি দলিলমুলে সাবেক ১১০ দাগে ৮২ শতক জমি উভয় দলিল ক্রয়সুত্রে ভোগ করে আসছেন। কিন্তু তিনি চট্টগ্রামে চাকুরী করাকালীন সময়ে তার অনুপস্থিতির কারনে উক্তজমি চলতি রেকর্ডে ভুলভাবে বাংলাদেশ সরকারের ১ নম্বর খতিয়ানে রেকর্ডভুক্ত হয়েছে। যা সংশোধনের জন্য বিজ্ঞ ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনাল, রংপুর-এ মোকদ্দমা বিচারাধীন রয়েছে। যার নম্বর ল্যান্ড সার্ভে মোকদ্দমা নং-২৭১২/১৬।
জমির মালিক মোয়াজ্জোম হোসেনের দাবি, উক্ত জমি আমার ক্রয়কৃত সম্পত্তি ; সে কারনে রেকর্ড সংক্রান্ত মোকদ্দমা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত উক্ত জমি দখল করার চেষ্টা বা স্থাপনা নির্মাণ করার চেষ্টা অন্যায় পদক্ষেপ। তিনি আরো জানান, বিষয়টি লিখিত ভাবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার পীরগঞ্জ, রংপুরকে জানানোর পরও আমার জমির উপর গুচ্ছগ্রাম এর ঘর নির্মানের অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি জমির মালিকানার বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য স্থানীয় প্রশাসন ও সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান।
এদিকে অভিযোগ উঠেছে , ওই এলাকায় গুচ্ছগ্রাম করার জন্য একটি জমি যার দাগ নং ২০০ নির্ধারণ করা হয়েছে। কিন্তু তহশীলদার অসুস্থ মোয়াজ্জেম হোসেন এর ২০২ দাগের জমিতে গুচ্ছগ্রাম এর ঘর নির্মানের অপ তৎপরতায় উৎসাহী হয়ে উঠেছেন।
আজ ২৭ নভেম্বর শুক্রবার সরেজমিনে গেলে গ্রামবাসী জানান, জমিটি কিনে দীর্ঘদিন যাবৎ ভোগদখল করছেন আসছেন মোয়াজ্জোম হোসেন। তারা আরও জানান, তহশীলদার সাহেব গত কদিন থেকে ওই জমিতে রাতের বেলায় ঘর উঠনোর চেষ্টা চালাচ্ছেন। রাতের বেলায় ২০২ দাগে ঘর নির্মানে এতো আগ্রহী কেন প্রশাসন?