April 19, 2021

Jagobahe24.com news portal

Real time news update

পীরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় আদিবাসী যুবক নিহতশালিসে লাশের মুল্য পৌনে ২ লাখ টাকা!

পীরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় আদিবাসী যুবক নিহতশালিসে লাশের মুল্য পৌনে ২ লাখ টাকা!

পীরগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় আদিবাসী যুবক নিহত শালিসে লাশের মুল্য পৌনে ২ লাখ টাকা!

পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধিঃ পীরগঞ্জে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত আদিবাসী যুবক পাখি পাউলুস লিন্ডুয়ার (২২) লাশের মামলা ঠেকাতে শালিসে পৌনে ২ লাখ টাকায় দফারফা করা হয়েছে। গত সোমবার রাতভর ওই শালিসে উপজেলার চৈত্রকোল ইউনিয়নের বাসুদেবপুর গ্রামে আ’লীগ নেতা সাবেক চেয়ারম্যান দেলদার হোসেন মাতবর ছিলেন। মঙ্গলবার সকাল ১১ টার দিকে নিহতের লাশটি দাফন করা হয়েছে। জানা গেছে, উপজেলার চৈত্রকোল ইউনিয়নের বাসুদেবপুর গ্রামের আদিবাসী মৃত. মহিম লিন্ডুয়ার ছেলে পাখি পাউলুস লিন্ডুয়ার সোমবার মাগরিবের নামাজের সময় তার বাড়ীর দক্ষিণে ভাটার মাটিবাহী একটি মাহেন্দ্র গাড়ীতে উঠে। এ সময় মাহেন্দ্র থেকে পড়ে চাকার নীচে মাথা পিষ্ট হয়ে সোমবার সন্ধ্যায় ঘটনাস্থলেই পাখি পাউলুস নিহত হন। মাহেন্দ্রটির চালক এরশাদ মিয়া গাড়ী রেখে পালিয়ে যায়। একপর্যায়ে এলাকাবাসী আটক গাড়ীটি চিহ্নিত করে সোমবার সন্ধ্যার পরই চৈত্রকোল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আ’লীগ নেতা দেলদার হোসেনের নেতৃত্বে ওই ভাটার ম্যানেজার আদিবাসী বাবলু লাকড়ার বাড়ীতে ইউপি সদস্য মোস্তফা মিয়া, মাহবুব মাষ্টারসহ শতাধিক মানুষ শালিসে বসে। রাত ৩টার দিকে ১ লাখ ৭৫ হাজার টাকা লাশের মুল্য নির্ধারন করে নগদ ৫০ হাজার টাকা দেয়া হয়। শালিশে ভেন্ডাবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আমিরুল ইসলামও উপস্থিত ছিলেন। তবে তিনি নিহতের মা- বুদ্রী কুজুরের কাছ থেকে লাশের ময়না তদন্ত করবেন না এমন অনাপত্তির কাগজে স্বাক্ষর নেন। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১ টার দিকে খালিশা মিশন কবরস্থানে নিহত পাখির লাশ দাফন করা হয়। নিহতের মা বুদ্রী কুজুর বলেন, পুলিশ এসে আমাকে বললো এতগুলা টাকা দেব, সই দাও। বাবলু লাকড়া ১ লাখ ৭৫ হাজার টাকা দেয়ার কথা বলে আমাকে ৫০ হাজার টাকা দিয়েছে। মাতবর দেলদার হাসেন বলেন, বিষয়টি নিষ্পত্তি করে দেয়া হয়েছে। ভাটার ম্যানেজার বাবলু লাকড়া বলেন, পাখির লাশটির ব্যাপারে নগদ ৫০ হাজার টাকা নগদ দেয়া হয়েছে। বাকী টাকা কাল (আজ) বুধবার দিব, আমিই টাকার রিস্ক নিয়েছি। টাকা দিয়ে লাশের দফারফা হয়নি এ কথা অস্বীকার করে ‘ই.এস.বি’ ব্র্যান্ডের ভাটা মালিক আতাউর রহমান আতা বলেন, বিষয়টি এমনিতেই সমঝোতা করা হয়েছে। ভেÐাবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আমিরুল ইসলাম বলেন, ঘটনা শোনার পর আমি গিয়েছি। ময়না তদন্ত করবে না এমন অঙ্গীকারনামায় স্বাক্ষর নিয়ে এসেছি। যদি তারা মামলা করতে চায়, তাহলে করতে পারে।