June 23, 2021

Jagobahe24.com news portal

Real time news update

ফুলবাড়ী পৌর শহরে ফুটপাত ও রাস্তা দখল করে গড়ে উঠেছে দোকানপাট ॥

ফুলবাড়ী পৌর শহরে ফুটপাত ও রাস্তা দখল করে গড়ে উঠেছে দোকানপাট ॥

ফুলবাড়ী পৌর শহরে ফুটপাত ও রাস্তা দখল করে গড়ে উঠেছে দোকানপাট ॥

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি
ফুলবাড়ী শহরকে সৌন্দর্য বৃদ্ধিকরণে ফুটপাত রেখে জনসাধারণের চলাচলে পথ সুগম করা প্রয়োজন। কিন্তু ফুলবাড়ী পৌর শহরে ফুটপাত ও রাস্তা দখল করে গড়ে উঠেছে দোকানপাট। পৌর কর্তৃপক্ষের নজরদেওয়া প্রয়োজন। ফুলবাড়ী শহরের নিমতলা থেকে বাজারে যেতে কিছু দূরে এগিয়ে গেলেই দেখা যাবে দুই দিকে দুটি রাস্তা চলে গেছে। একটি কালিবাড়ী রাস্তার দিকে আরেকটি কাপড়পট্টি ও হাড়িপাতিলের দোকানের দিকে। কাপড়পট্টির দিকে যেতে সামনের অংশ ফুটপাতে রাস্তা দখল করে আছে ছোট গার্মেন্টস, ডালভুষির দোকান, লুঙ্গি মশারির দোকান। স্বচ্ছন্দে চলাচল করতে পারছেন না সাধারণ পথচারীরা। সরু রাস্তায় চলতে গিয়ে সীমাহীন যানজটে ভুগছে নগরবাসী। মোড়ের ওপর জট বেঁধে যায় মানুষের। শুধু দোকান আর মানুষই নয়, রাস্তার ওপর পাল্লা দিয়ে রাখা হয় মোটরসাইকেল। যান চলাচলে ঘটছে ব্যাঘাত, সারাক্ষণই লেগে থাকছে জট। এমনিতেই সংকীর্ণ রাস্তা সেখানে এখনো পুরাতন মান্ধাত্তা আমলের বাঁশের লাঠি লাগিয়ে ঝাঁপ দিয়ে দোকান করছে। এ যুগে বাঁশের লাঠি ব্যবহার করে দোকান আর কেউ করে না। অথচ এখনো ব্যস্ত শহরে ঝাপের লাঠিটি সম্পূর্ণ রাস্তার উপরে লাগিয়ে ঝাঁপের নিচে বিভিন্ন মালামাল রাখায় আবাসিক এলাকায় রিতিমত ব্যবসা করছে। এখানে রিক্সায় বা হেঁটে যেতে বিড়ম্বনার শিকার হতে হয় প্রতিনিয়ত। এলাকার রেদওয়ান চৌধুরী বলেন, এই পথেই আমাদের নিয়মিত যাতায়াত করতে হয়। সব মিলিয়ে একটা প্রচন্ড বিশৃঙ্খল অবস্থা। একটু পর পর লেগে যায় যানজট। এলাকার আরেক বাসিন্দা এনায়েত উল্লাহ বলেন, এটি অনেক ব্যস্ত সড়ক। এখান দিয়ে প্রতিদিনের কাঁচাবাজার, ঔষধ, কাপড়সহ বিভিন্ন নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে হয়। দোকানগুলোতে ক্রয় করতে আসা মানুষজন তাদের ভ্যান গাড়ী, মটর সাইকেল, ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক, পিকাপ, পাওয়ার ট্রিলার, সাইকেল ইত্যাদি রাস্তায় রেখে তাদের কাজকর্ম করে। এভাবেই মোড়টিকে বারোমাস জ্যাম লাগিয়ে রাখে। জ্যামের কারণে সাধারণ পথচারির ও ক্রেতা-বিক্রেতা উভয়ের সাথে অপ্রিতিকর ঘটনা নিত্য লেগেই থাকে। কিছুদিন আগেও পৌরসভা কর্তৃক চলাচলের রাস্তায় নির্মাণ সমগ্রী বা দোকানের মালামাল রাখা যাবেনা বলে ঘোষণা করলেও তা তোয়াক্কা না করেই এখনো রাস্তায় এভাবে মালামাল রেখে আবাসিক ও পথচারিদের চলাচলে বিঘœ ঘটাচ্ছে। ফুলবাড়ী সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ চিত্তরঞ্জন দাসের বাড়ি সংলগ্ন রাস্তাটি দিনরাত পাশ্ববর্তী জনৈক ব্যবসায়ী ঝাপ তুলে দিয়ে দেধারছে দোকান করছেন। এতে কোন ছোট যানবাহন এবং সাধারণ মানুষ চলাচল করতে পারছেন না। এ ব্যাপারে এলাকাবাসী সরেজমিনে তদন্ত স্বাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পৌর প্রশাসকের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।