September 20, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৩টি ইউনিট থেকে পর্যায়ক্রমে বিদ্যুৎ সরবরাহ অব্যাহত রয়েছে॥

পার্বতীপুর , দিনাজপুর প্রতিনিধি:
দেশের উত্তরাঞ্চলের দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৩টি ইউনিট থেকে পর্যায়ক্রমে বিদ্যুৎ সরবরাহ অব্যাহত রয়েছে।

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৩টি ইউনিট থেকে পর্যায়ক্রমে উত্তরাঞ্চলে জাতীয় গ্রীডে বিদ্যুৎ সরবরাহ অব্যাহত রয়েছে। বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৩টি ইউনিটের মধ্যে ২টি ইউনিট ওভারহোলিং করার পর বর্তমান তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের পুরাতন ২টি ইউনিট এখন সচল রয়েছে। ২০২০ সালে বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী এসএম ওয়াজেদ আলী সরদার যোগদান করার পর তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের যেসব সমস্যা ছিল তা পর্যায়ক্রমে সমাধান করে আসছেন। ২০২০ সালে করোনামহামারির মধ্যে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোন জনবল যাতে আক্রান্ত না হয় সেদিক লক্ষ্য রেখে সেইসময় উত্তরাঞ্চলের শিল্পকলকারখানায় ও কৃষি কাজের উৎপাদন বাড়াতে এবং সকল শিল্পকলকারখানা চালু রাখতে নিরবিচ্ছন্নভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ অব্যাহত রয়েছিল। ১৫ই আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৪৬তম মৃত্যুবার্ষিকীতে তাপবিদ্যুাৎ কেন্দ্রের পক্ষ থেকে ৬শ হতদরিদ্র গরীবদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়। বর্তমান কয়লাখনি থেকে কয়লা সরবরাহ কম থাকার কারনে বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ এর ৩টি ইউনিট পর্যায়ক্রমে চালু রেখে বিদ্যুাৎ উৎপাদন অব্যাহত রয়েছে। আগামী ইরিবোরো মৌসুমে ধারাবাহিকভাবে ৩টি ইউনিট চালু রেখে বিদ্যুৎ সরবরাহ অব্যাহত রাখা হবে। সেই জন্য পুরাতন ২টি ইউনিট সংস্কার করা হয়েছে। এখন এই এলাকায় বিদ্যুতের ঘাটতি নেই। বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর স্মৃতি ধরে রাখতে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে মুজিব কর্ণার নির্মাণ করা হয়েছে। বর্তমান তা উদ্ভোধনের অপেক্ষায় রয়েছে। তাপবিদ্যুতের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীরা তাদের নিজ নিজ দায়িত্ব থেকে কাজ করছেন। এখন তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভিতরে কাজ কর্মে শ্রমিকদের মধ্যে কর্মদক্ষতা বৃদ্ধি পেয়েছে। বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী এসএম ওয়াজেদ আলী সরদার তিনি নিজে সবকিছু তদারক করছেন। এ বিষয়ে, বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক ৫শ২৫ মেগাওয়াট তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী এসএম ওয়াজেদ আলী সরদার সাংবাদিকদের জানান, বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের পদোন্নতি দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৩টি ইউনিট পর্যায়ক্রমে চালু রেখে পরিকল্পনা অনুযায়ী শিল্প কলকারখানায় ও কৃষিখাতে উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে নিরবিচ্ছন্নভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ অব্যাহত রাখা হয়েছে। আগামী খরা মৌসুমে বিদ্যুৎ সরবরাহে কোন সমস্যা না হয় সেজন্য ৩টি ইউনিট পর্যায়ক্রমে চালু রাখা হয়েছে। তিনি যোগদানের পর সততা ও নিষ্ঠার সাথে তার উপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করছেন এবং আগামীতেও করবেন মর্মে জানান।