September 17, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

২’শ বছরের ঐতিহ্যবাহী মাদারগঞ্জ হাটটি ডিজিটাল হাটে রুপান্তর

২’শ বছরের ঐতিহ্যবাহী মাদারগঞ্জ হাটটি ডিজিটাল হাটে রুপান্তর

২’শ বছরের ঐতিহ্যবাহী মাদারগঞ্জ হাটটি ডিজিটাল হাটে রুপান্তর

পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি: রংপুরের পীরগঞ্জে ২’শ বছরের ঐতিহ্যবাহী মাদারগঞ্জ হাট ডিজিটাল হাটে রুপান্তরিত হয়েছে। স্বাধীনতার পর থেকে মাদারগঞ্জ হাটটি উপজেলা ছাড়িয়ে কয়েকটি জেলায় হাটটি সুনাম ছড়িয়ে পড়েছে। গত অর্থ বছর উপজেলা পরিষদ থেকে মাদারগঞ্জ হাটটি ১ কোটি ১৯ লক্ষ টাকা লীজে সর্বোচ্চ ইজারাদার হিসেবে হাটটি লীজ নেন আহসান হাবিব প্রধান। সরে জমিন ঘুরে দেখা গেছে, হাটটি দৃষ্টি নন্দন ও জনদুর্ভোগ কমাতে হাট ইজারাদার নিজ অর্থায়নে কর্দ্যমাক্ত স্থানে রাবিস এবং জড়াজীর্ণ, ঝুপড়ি ঘর গুলোকে ভেঙ্গে ফেলে আধুনিক মানের ৪টি সেড নির্মাণ, হাটের ভিতরে যাতায়াতের জন্য রাস্তা পাকাকরণ। এছাড়ও চুরি ছিনতাই রোধে সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা হয়। ৩টি নতুন সেড নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে ইজারাদারের। এদিকে গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়া বিক্রয়ের জন্য সরকারি নির্ধারিত টোলের চেয়েও কম মূল্যে টোল আদায় করা হয়। এছাড়াও রংপুর, নীলফামারী, গাইবান্ধা, বগুড়া, পাবনা, নাটোর, সিরাজগঞ্জ, চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন জেলা থেকে গরু ব্যবসায়ীগণ গরু ক্রয়-বিক্রয়ের জন্য হাটে আসেন। ব্যবসায়ীদের সার্বিক নিরাপত্তা বিবেচনায় ২টি থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। এ ব্যাপারে হাট ইজারাদার আহসান হাবিব জানান, ২ একর ৮৮ শতক জমির উপর হাটটি লীজ নেওয়া হলেও অবৈধভাবে একবারপুর দক্ষিণপাড়া গ্রামের মোকসেদ আলী, জিল্লুর রহমান, বাবু খাঁসহ ১০/১৫ জন ৩৫ শতক জমিতে পাকা ঘর নির্মাণ করে দখলে রয়েছে। উল্লেখ্য, ইজারাদার এবং হাট সংশ্লিষ্টগণ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদসহ ঝুকিপূর্ণ মেহগুনি গাছ এবং কয়েকটি বড় গাছের ডালপালা অপসারণ না করা হলে যে কোন বড় ধরণের দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। এ বিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আলাউদ্দিন ভুইয়া জনি জানান, সরে জমিনে তদন্ত করে ব্যবস্থা নিবো।