September 20, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

দিনাজপুরের ঐতিহাসিক নয়াবাদ মসজিদ

দিনাজপুরের ঐতিহাসিক নয়াবাদ মসজিদ

দিনাজপুরের ঐতিহাসিক নয়াবাদ মসজিদ

খায়রুন নাহার বহ্নি, বীরগঞ্জ(দিনাজপুর)প্রতিনিধিঃ দিনাজপুর জেলা শহর থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে কাহারোল উপজেলার নয়াবাদ গ্রামে ১.১৫ বিঘা জমির উপর নয়াবাদ মসজিদ (ঘধুধনধফ গড়ংয়ঁব) নির্মাণ করা হয়েছে। নয়াবাদ মসজিদের দেয়ালে প্রাপ্ত ফলকের তথ্য মতে, ১৭৯৩ সালে স¤্রাট দ্বিতীয় শাহ আলমের রাজত্ব কালে এই মসজিদটি তৈরী করা হয়। তৎকালীন সময়ে রাজা বৈদ্যনাথ ছিলেন দিনাজপুর রাজ পরিবারের সর্বশেষ বংশধর। স্থানীয়দের মতে, ১৮ শতকের মাঝামাঝি সময়ে কান্তজিউ মন্দির তৈরীতে আগত মুসলমান স্থপতি ও শ্রমিকদের মাধ্যমে নয়াবাদ মসজিদটি নির্মিত হয়।
নয়াবাদ মসজিদের ছাদে ৩ গম্বুজ এবং চার কোণে অষ্টভুজাকৃতির ৪ টি মিনার রয়েছে। মসজিদের দেয়ালের পুরুত্ব ১.১০ মিটার। পশ্চিম দিকে ৩টি মিম্বারের বিপরীত পাশে মসজিদে প্রবেশের জন্য ৩টি দরজা স্থাপন করা হয়েছে। নয়াবাদ মসজিদের নকশায় অসংখ্য টেরাকেটার ব্যবহার থাকলেও বর্তমানে মাত্র শখানেক টেরাকোটা অবশিষ্ট আছে। আর মসজিদের পাশে একটি কবর লক্ষ করা যায়, তবে কবরটি কার সে সম্পর্কে কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। দিনাজপুর-১(বীরগঞ্জ- কাহারোল) আসনের সংসদ সদস্য জনাব মনোরঞ্জন শীল গোপাল এর নিবিড় তত্বাবধানে এই সমজিদটি সৌন্দর্য ও আলোকাবৃত্ত এখন অত্র এলাকার পর্যটনের অন্যতম আকর্ষনে পরিনত হয়েছে।
কিভাবে যাবেন-
ঢাকা থেকে বাস এবং ট্রেনে দিনাজপুর যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। সাধারণত ঢাকার গাবতলী ও কল্যাণপুর থেকে দিনাজপুরগামী বাসগুলো ছেড়ে যায়। বাস সার্ভিসের মধ্যে রয়েছে নাবিল পরিবহন, এস আর ট্রাভেলস, এস এ পরিবহন, হানিফ এন্টারপ্রাইজ, শ্যামলী পরিবহন ইত্যাদি। নন-এসি এবং এসি বাস ভাড়া মানভেদে ৬০০ থেকে ১০০০ টাকা। এছাড়া রাজধানীর উত্তরা থেকে বেশকিছু বাস দিনাজপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়।

ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে আন্তনগর দ্রুততযান এক্সপ্রেস ট্রেন দিনাজপুরের উদ্দেশ্যে রাত ৮ টায় ছেড়ে যায়। আন্তনগর ট্রেন একতা এক্সপ্রেস ঢাকা থেকে সকাল ১০ টায় ছাড়ে। আর পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেন ঢাকা থেকে ছেড়ে যায় রাত ১০ টা ৪৫ মিনিটে। শ্রেণীভেদে এইসব ট্রেনের টিকেট কাটতে ১৮৫ থেকে ৯০০ টাকা লাগে। দিনাজপুর থেকে অটোরিক্সা বা সিএনজি ভাড়া করে নয়াবাদ মসজিদ দেখতে যেতে পারবেন।