November 29, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

চার ম্যাচ পর জয়ের দেখা পেল কলকাতা

চার ম্যাচ পর জয়ের দেখা পেল কলকাতা

চার ম্যাচ পর জয়ের দেখা পেল কলকাতা

আইপিএলের প্রথম ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে হারিয়ে টুর্নামেন্টের দারুণ সূচনা করেছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। কিন্তু এরপরই যেন পথ হারিয়ে ফেলে এডউইন মরগ্যানের দল। একে একে হারল চারটি ম্যাচ। অবশেষে ষষ্ঠ ম্যাচে এসে পাঞ্জাব কিংসকে হারিয়ে জয়ের দেখা পেল কলকাতা।

সোমবার আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় ৯ উইকেটে ১২৩ রান করে পাঞ্জাব কিংস। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ২০ বল বাকি থাকতেই ৫ উইকেটের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে এডউইন মরগ্যানের দল।

ব্যাটিং করতে নেমে শুরুতেই ফেরেন দুই ওপেনার। শুভমান গিল ৮ বলে ৯ ও নিতীশ রানা করে ০। সুনীল নারাইন এই ম্যাচেও ব্যাট হাতে ব্যর্থ। তখন খেলার হাল ধরেন রাহুল ত্রিপাঠি-মরগ্যান।

ত্রিপাঠি ৩২ বলে ৪১ করে ফিরলেও মরগ্যান ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। এর আগের ৫ ইনিংসে মরগ্যান করেন ৪৫ রান। তিন ম্যাচে দেখেননি দুই অংকের মুখ, এক ম্যাচে করেন ২৯। এবার ম্যাচ জিতিয়েই মাঠ ছাড়লেন তিনি।

এর আগে প্রসিদ্ধ কৃষ্ণা-প্যাট কামিন্সের দারুণ বোলিংয়ে পাঞ্জাব কিংসকে ১২৩ রানের বেশি করতে দেয়নি কলকাতা। ব্যাটিং করতে নেমে সাবধানি শুরু করে পাঞ্জাব। দুই ওপেনার লোকেশ রাহুল-মায়াঙ্ক আগারওয়াল দেখেশুনে খেলতে থাকেন। ২০ বলে ১৯ রান করে রাহুল আউট হলে ৩৮ রানে ভাঙে ওপেনিং জুটি। এরপর গেইল এসেই ফেরেন ০ রানে। এরপরই দীপক হুদা নেমে ফেরেন ১ রানে। ৪ রানের ব্যবধানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে পাঞ্জাব।

শেষ দিকে ক্রিস জর্দানের ১৮ বলে ৩০ রানের সুবাদে টেনেটুনে একশ পার করে দলটি। সর্বোচ্চ ৩১ রান করেন মায়াঙ্ক। ১৪ বলে ১৩ রান আসে শাহরুখ খানের ব্যাট থেকে। কলকাতার হয়ে ৪ ওভারে ৩০ রান দিয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন প্রসিদ্ধ কৃষ্ণা। ২টি করে উইকেট নেন প্যাট কামিন্স ও সুনিল নারাইন।