January 24, 2022

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

১২৬ রানেই শেষ বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস

১২৬ রানেই শেষ বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস

১২৬ রানেই শেষ বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস

নিউজিল্যান্ডের ৫২১ রানের জবাবে বাংলাদেশ অলআউট হয়েছে মাত্র ১২৬ রানে। বাংলাদেশের পক্ষেই একাই লড়াই করেছেন ইয়াসির আলি। অর্ধশতক হাঁকিয়েছেন তিনি। ৫ উইকেট নিয়েছেন ট্রেন্ট বোল্ট।

৯৯ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিন সকালে ব্যাট করতে নামেন ডেভন কনওয়ে। দিনের শুরুতেই তিনি পান শতকের দেখা। তবে আর বেশি দূর যেতে পারেননি। মেহেদী হাসান মিরাজের থ্রোতে রান আউট হয়ে থামেন ১০৯ রানে। কনওয়ের ১৬৬ বলের ইনিংসে ছিল ১২ চার ও এক ছক্কা।

কনওয়ে ফেরার পর ল্যাথামের সাথে জুটি গড়েন রস টেলর। ৩৯ বলে ২৮ রান করা টেলরকে শিকার করেন এবাদত। শরিফুলের হাতে ক্যাচ দেন টেলর। হেনরি নিকোলসকেও শিকার করেন এবাদত। উইকেটরক্ষক নুরুল হাসানের হাতে ক্যাচ দিয়ে রানের খাতা খোলার আগেই বিদায় নেন নিকোলস।

মধ্যাহ্ন বিরতির ঠিক আগে ড্যারিল মিচেলকে শিকার করেন শরিফুল। মিচেলও সোহানের তালুবন্দী হন। মধ্যাহ্ন বিরতির পর ওয়ানডে মেজাজে ব্যাট করেন টম ল্যাথাম ও টম ব্লান্ডেল। ল্যাথাম আউট হওয়ার আগে তারা গড়েন ৭৬ রানের জুটি। মুমিনুল হকের বলে ইয়াসির আলির হাতে ক্যাচ দেন ল্যাথাম। কিউই অধিনায়কের ব্যাট থেকে আসে ৩৭৩ বলে ২৫২ রান। ইনিংসটিতে ছিল ৩৪টি চার ও ২টি ছক্কা।

ব্লান্ডেল অর্ধশতক হাঁকানোর পর ইনিংস ঘোষণা করে ব্ল্যাকক্যাপস। ৬০ বলে ৫৭ রানের দ্রুতগতির ইনিংস খেলেন ব্লান্ডেন। নিউজিল্যান্ড সংগ্রহ করে ৬ উইকেটে ৫২১ রান। বাংলাদেশের পক্ষে শরিফুল ও এবাদত দুইটি করে এবং মুমিনুল একটি উইকেট নেন।

বড় রানের জবাব দিতে নেমে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ। ট্রেন্ট বোল্টের বলে সাদমান ইসলাম আউট হলে ৭ রানে প্রথম উইকেট হারায় সফরকারীরা। অভিষিক্ত নাঈম শেখ বিদায় নেন ০ রানে। নাজমুল হোসেন শান্ত ৪ ও অধিনায়ক মুমিনুল ০ রানে আউট হন। ১১ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে দিনের আলোর ভেতরেও চোখে অমানিশা দেখে বাংলাদেশ।

৪ উইকেটে ২৭ রান নিয়ে চা বিরতিতে যান লিটন দাস ও ইয়াসির আলি। বিরতি থেকে ফিরে কোনো রান পাওয়ার আগেই আউট হয়ে যান লিটন দাস। ইয়াসিরকে নিয়ে সোহান চেষ্টা করেন ইনিংস পুনরায় গড়ার। তবে ভাগ্য সহায় ছিল না, আম্পায়ার্স কলে আউট হন সোহান। ৬২ বলে ৪১ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। ৮৭ রানে ৬ উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

মেহেদী হাসান মিরাজের সাথে ২২ রানের জুটি গড়েন ইয়াসির। ৩৩টি বল মোকাবেলা করে মিরাজ করেন ৫ রান। মিরাজকে বোল্ড করে টেস্ট ক্যারিয়ারের ৩০০তম উইকেট পান বোল্ট। তাসকিন আহমেদ জেমিসনকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে আউট হন। ১১৮ রানে ৮ উইকেট হারিয়ে ফেলে বাংলাদেশ।

সফরকারীদের পক্ষে একাই লড়াই করা ইয়াসির টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম অর্ধশতক হাঁকানোর পর নিজের ভুলেই আত্মহুতি দিয়ে মাঠ ছাড়েন। পরের ওভারেই শরিফুলকে বোল্ড করেন ইনিংসে ৫ উইকেট শিকার করেন বোল্ট। বাংলাদেশ অলআউট হয় ১২৬ রানে। নিউজিল্যান্ড পেয়েছে ৩৯৫ রানের লিড।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

নিউজিল্যান্ড ৫২১/৬ ডিক্লেয়ার (১২৮.৫ ওভার)
ল্যাথাম ২৫২, কনওয়ে ১০৯, ব্লান্ডেল ৫৭*, ইয়ং ৫৪, টেলর ২৮;
এবাদত ২/১৪৩, শরিফুল ২/৭৯।

বাংলাদেশ ১২৬/১০ (৪১.২ ওভার)
ইয়াসির ৫৫, সোহান ৪১, লিটন ৮, সাদমান ৭, নাঈম ০, শান্ত ৪, মুমিনুল ০;
বোল্ট ৫/৪৩, সাউদি ৩/২৮, জেমিসন ২/৩২।

নিউজিল্যান্ডের লিড ৩৯৫ রান।