January 28, 2022

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

ডেস্ক: ক্ষমতা দখলকারী সেনাবাহিনীর সঙ্গে বিতর্কিত চুক্তির মাধ্যমে ক্ষমতায় ফিরে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করেছেন সুদানের প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদোক। ক্ষমতায় ফেরার কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই পদত্যাগ করলেন তিনি। ২০২০ সালের অক্টোবরে সেনাবাহিনী ক্ষমতা দখল করে আবদাল্লাহ হামদোককে গৃহবন্দি করে। তবে অভ্যুত্থানের নেতাদের সঙ্গে ক্ষমতা ভাগাভাগির চুক্তির মাধ্যমে পরের মাসেই আবারও ক্ষমতায় ফেরেন তিনি। ওই চুক্তির বিরোধিতা করছেন বিক্ষোভকারীরা। তাদের দাবি পুরোপুরিভাবে বেসামরিক রাজনৈতিক শাসন। পদত্যাগ করা প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদোক বলেছেন সুদান বর্তমানে ‘এক বিপজ্জনক টার্নিং পয়েন্টে’ রয়েছে। তিনি বলেন দেশকে বিপর্যয়ের দিকে এগিয়ে যাওয়া ঠেকাতে সাধ্যমত চেষ্টা করেছেন তিনি। তিনি দাবি করেন সম্মতিতে পৌঁছাতেই ছিল তার সব চেষ্টা কিন্তু তা হয়নি। ২০১৯ সালে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখেদীর্ঘদিনের প্রেসিডেন্ট ওমর আল বশির ক্ষমতাচ্যুত হন। তারপর বেসামরিক ও সামরিক নেতারা দেশটিতে গণতন্ত্র ফেরাতে ক্ষমতা ভাগাভাগির চুক্তি করেন। অক্টোবরের অভ্যুত্থানের নেতা জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-বুরহান দাবি করেছেন সুদান এখনো বেসামিরক শাসনে ফিরে যেতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ২০২৩ সালের জুলাইতে পরিকল্পনা অনুযায়ী নির্বাচন হবে বলেও জানান তিনি। তবে বিক্ষোভকারীরা বলছেন তারা সেনাবাহিনীকে বিশ্বাস করেন না।

ডেস্ক: ক্ষমতা দখলকারী সেনাবাহিনীর সঙ্গে বিতর্কিত চুক্তির মাধ্যমে ক্ষমতায় ফিরে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করেছেন সুদানের প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদোক। ক্ষমতায় ফেরার কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই পদত্যাগ করলেন তিনি। ২০২০ সালের অক্টোবরে সেনাবাহিনী ক্ষমতা দখল করে আবদাল্লাহ হামদোককে গৃহবন্দি করে। তবে অভ্যুত্থানের নেতাদের সঙ্গে ক্ষমতা ভাগাভাগির চুক্তির মাধ্যমে পরের মাসেই আবারও ক্ষমতায় ফেরেন তিনি। ওই চুক্তির বিরোধিতা করছেন বিক্ষোভকারীরা। তাদের দাবি পুরোপুরিভাবে বেসামরিক রাজনৈতিক শাসন। পদত্যাগ করা প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদোক বলেছেন সুদান বর্তমানে ‘এক বিপজ্জনক টার্নিং পয়েন্টে’ রয়েছে। তিনি বলেন দেশকে বিপর্যয়ের দিকে এগিয়ে যাওয়া ঠেকাতে সাধ্যমত চেষ্টা করেছেন তিনি। তিনি দাবি করেন সম্মতিতে পৌঁছাতেই ছিল তার সব চেষ্টা কিন্তু তা হয়নি। ২০১৯ সালে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখেদীর্ঘদিনের প্রেসিডেন্ট ওমর আল বশির ক্ষমতাচ্যুত হন। তারপর বেসামরিক ও সামরিক নেতারা দেশটিতে গণতন্ত্র ফেরাতে ক্ষমতা ভাগাভাগির চুক্তি করেন। অক্টোবরের অভ্যুত্থানের নেতা জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-বুরহান দাবি করেছেন সুদান এখনো বেসামিরক শাসনে ফিরে যেতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ২০২৩ সালের জুলাইতে পরিকল্পনা অনুযায়ী নির্বাচন হবে বলেও জানান তিনি। তবে বিক্ষোভকারীরা বলছেন তারা সেনাবাহিনীকে বিশ্বাস করেন না।

অবশেষে পদত্যাগ করলেন সুদানের প্রধানমন্ত্রী

ডেস্ক: ক্ষমতা দখলকারী সেনাবাহিনীর সঙ্গে বিতর্কিত চুক্তির মাধ্যমে ক্ষমতায় ফিরে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করেছেন সুদানের প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদোক। ক্ষমতায় ফেরার কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই পদত্যাগ করলেন তিনি।

২০২০ সালের অক্টোবরে সেনাবাহিনী ক্ষমতা দখল করে আবদাল্লাহ হামদোককে গৃহবন্দি করে। তবে অভ্যুত্থানের নেতাদের সঙ্গে ক্ষমতা ভাগাভাগির চুক্তির মাধ্যমে পরের মাসেই আবারও ক্ষমতায় ফেরেন তিনি। ওই চুক্তির বিরোধিতা করছেন বিক্ষোভকারীরা। তাদের দাবি পুরোপুরিভাবে বেসামরিক রাজনৈতিক শাসন।

পদত্যাগ করা প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদোক বলেছেন সুদান বর্তমানে ‘এক বিপজ্জনক টার্নিং পয়েন্টে’ রয়েছে। তিনি বলেন দেশকে বিপর্যয়ের দিকে এগিয়ে যাওয়া ঠেকাতে সাধ্যমত চেষ্টা করেছেন তিনি। তিনি দাবি করেন সম্মতিতে পৌঁছাতেই ছিল তার সব চেষ্টা কিন্তু তা হয়নি।

২০১৯ সালে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখেদীর্ঘদিনের প্রেসিডেন্ট ওমর আল বশির ক্ষমতাচ্যুত হন। তারপর বেসামরিক ও সামরিক নেতারা দেশটিতে গণতন্ত্র ফেরাতে ক্ষমতা ভাগাভাগির চুক্তি করেন। অক্টোবরের অভ্যুত্থানের নেতা জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-বুরহান দাবি করেছেন সুদান এখনো বেসামিরক শাসনে ফিরে যেতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ২০২৩ সালের জুলাইতে পরিকল্পনা অনুযায়ী নির্বাচন হবে বলেও জানান তিনি। তবে বিক্ষোভকারীরা বলছেন তারা সেনাবাহিনীকে বিশ্বাস করেন না।