November 29, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

কিশোরগঞ্জে লাঙ্গল প্রতীকের মিছিলে হামলা ও ভাংচুর

কিশোরগঞ্জে লাঙ্গল প্রতীকের মিছিলে হামলা ও ভাংচুর

কিশোরগঞ্জে লাঙ্গল প্রতীকের মিছিলে হামলা ও ভাংচুর

কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ নীলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলার ৯ নং মাগুড়া ইউনিয়নে লাঙ্গল মার্কার সমর্থকরা একটি মিছিলে নিয়ে মাগুড়া বাসষ্টানে পৌঁছুলে অতর্কিত ভাবে হামলা ও পিকআপ ভাংচুরের শিখার হয়েছেন সমর্থক ও ড্রাইভার মশিউর রহমান সহ বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী। পিকআপ ভ্যানটি রেজিঃ নং- ঢাকা মেট্রো- ন ১৫-৬৭১০। পরে ড্রাইভার মশিউর রহমান বাদী হয়ে ১২ জনকে আসামী করে ও অঙ্গত নামা আরোও ৩০/৪০ জনের নামে কিশোরগঞ্জ থানায় এতটি অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গড় ২৩ অক্টোবর রাত ১০ টার সময় মশিউর রহমানের পিকআপ নিয়ে লাঙ্গল প্রতীকের একটি মিছিল শ্লোগান দিতে দিতে মাগুড়া বাসস্টানে পৌঁছলে অতর্কিত ভাবে বর্তমান চেয়ারম্যান মাহামুদুল হাসান শিহাবের হুকুমে মাগুড়া মিয়া পাড়া গ্রামের মৃত মোজাহার হোসেনের ছেলে মিলন মিয়া (৫০) ও রানু মিয়া,  টাটিয়া মামুদের ছেলে আয়নাল মিয়া(৩৫),মকবুল হোসেনের ছেলে আলম মিয়া,(৪০) চষিয়া মামুদের ছেলে আঙ্গুর চৌধুরী (৫০), মকু মিয়ার ছেলে জুয়েল(৫০), বাচ্চা মিয়ার ছেলে মিজানুর রহমান( ৪৬), ভেল্টা মামুদের ছেলে লিখন মিয়া (২২), মজিবার রহমানের ছেলে সাঈদ (২৫), গাড়াগ্রাম ইউনিয়নের নেরভেরা বাবুর ছেলে মহাত্মান সহ আরো অঙ্গত নামা ৩০/৪০ জনের একটি দল পূর্ব পরিকল্পপিত ভাবে তৈরি হয়ে ছিল। মাগুড়া বাসষ্টানে পিকআপটি পৌঁছালে একদল মানুষ দৌড়ে এসে পিকআপ ভেনের সামনের গ্লাস ও গাড়ীর পিছনের বডিতে এলোপাতারি মারপিট শুরু করে । তখন পিকআপ ভ্যান থেকে লোকজন ছোটাছুটি শুরু করে। বর্তমান চেয়ারম্যানের কিছু লোক ড্রাইভার মশিউর রহমানকে এলোপাতাড়ি মারপিট করে। এতে মশিউর আহত হয়। পরে তাকে কিশোরগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মশিউর রহমান বলেন এতে তার পিকআপটির কি দোষ ছিল। লাঙ্গল মার্কার সমর্থকরা তার পিকআপ ভারে নিয়ে ছিল। তাই তারা যে দিকে যেতে বলেছে তিনি তাই করেছেন। তিনি আরোও বলেন তার পিকআপটির যে অবস্থা হয়েছে তাতে তার প্রায় ৫০,০০০/ (পঞ্চাশ হাজার) টাকার ক্ষতি হয়েছে। 
এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জ থানার অফিসার ইনর্চাজ আব্দুল আউয়াল বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তবে অভিযোগটি একটু পরিবর্তন করতে হবে। পরিবর্তেন করলে মামলা রুজু করা হবে।