September 20, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

গাইবান্ধায় কলেজছাত্রী সুলতানা হত্যায় কে জড়িত প্রশ্ন সবার মনে?

গাইবান্ধায় কলেজছাত্রী সুলতানা হত্যায় কে জড়িত প্রশ্ন সবার মনে?

গাইবান্ধায় কলেজছাত্রী সুলতানা হত্যায় কে জড়িত প্রশ্ন সবার মনে?

গাইবান্ধা ঃ গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলায় দিনে-দুপুরে আতিকা সুলতানা (১৬) নামে এক কলেজছাত্রীকে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় পাল্টা-পাল্টি অভিযোগে ধুম্রজালের সৃষ্টি হয়েছে। তবে রহস্য উদঘাটনে কাজ করছে পুলিশ।নিহতের মায়ের দাবি, মেয়ের প্রেমিকসহ অপর এক যুবক সুলতানাকে হত্যা করেছে। নিহতের বাবা আমিনুল ইসলামের অভিযোগ পরিবারের সদস্যরাই হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উপজেলার ভরতখালি ইউনিয়নের দক্ষিণ উল্লা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সুলতানা ওই গ্রামের ক্বারী আমিনুল ইসলামে মেয়ে। স্থানীয় উদয়ন ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিল।

সুলতানার মা হামিদা বেগম দাবি করে বলেন, রাসেলের সঙ্গে সুলতানার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সম্পর্কের টানাপোড়েনের জের ধরে শুক্রবার দুপুরে স্থানীয় উজ্বল মিয়ার ছেলে রাসেলসহ দুই যুবক বাড়িতে ঢুকে প্রকাশ্যে ছুরি দিয়ে সুলতানাকে গলাকেটে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

সুলতানার বাবা আমিনুল ইসলাম অভিযোগ করেন, রাসেল-সুলতানার প্রেমের সম্পর্কের জের ধরে শুক্রবার দুপুরে সুলতানার সঙ্গে মাসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের বাকবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে তাদেরই কেউ সুলতানাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলাকেটে হত্যা করেছে।

এ ব্যাপারে সাঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বেলাল হোসেন জানান, প্রেমঘটিত ঘটনার জের ধরে এ হত্যাকান্ড ঘটেছে। সার্বিক বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

ওসি জানান, সুলতানার মায়ের অভিযোগের পাশপাশি নিহতের বাবার বর্ণনা মোতাবেক মাসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করা হয়নি।

খবর পেয়ে বিকেলে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি চাকু উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান ওসি বেলাল হোসেন।