August 2, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

ঝিনাইদহের হলিধানী ইউনিয়নে ইউপি সদস্যের যৌন কেলেংকারীর দফা রফা

ঝিনাইদহের হলিধানী ইউনিয়নে ইউপি সদস্যের যৌন কেলেংকারীর দফা রফা

ঝিনাইদহের হলিধানী ইউনিয়নে ইউপি সদস্যের যৌন কেলেংকারীর দফা রফা

এলাকাজুড়ে তোলপাড়, ৬৫ হাজার টাকায় ধামাচাপা

ঝিনাইদহ-
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ৪নং হলিধানী ইউনিয়নের ০৮ নং ওয়ার্ডের মেম্বার সোনারদাইড় গ্রামের বাসিন্দা আমির হোসেনের নামে নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগ উঠেছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গত ১৪ জুন ২০২১ ইং তারিখ সোমবার মধ্যরাতে হলিধানী মালিথাপাড়ার মাহফুজ ড্রাইভারের মেয়ে বন্যা খাতুনের সাথে অনৈতিক কার্যকলাপে লিপ্ত থাকা অবস্থায় হাতেনাতে আটক করে এলাকাবাসী। কিন্তু ক্ষমতার দাপটে ও ৬৫ হাজার টাকায় ঘটনা ধামাচাপা দিয়ে দেন মেম্বর আমির হোসেন। শুধু ঘটনার ধামাচাপা দিয়ে ক্ষ্যান্ত হয়নি তিনি, স্থানীয়দের হুমকি ধামকি দিয়েছেন যাতে কেউ এই ঘটনা প্রকাশ না করে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বেশ আতঙ্কে আছে এলাকার খেটে খাওয়া মানুষ। এলাকাবাসী সূত্রে আরো জানা যায়, আমির মেম্বরের বিরুদ্ধে এর আগেও একাধিক নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগ আছে। তাছাড়াও এলাকায় তার অন্যায়ের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করলে তাকে ক্ষমতার দৌরাত্ম দেখিয়ে মুখ বন্ধ করে দেন বলে জানিয়েছে অনেকে। আমির হোসেন মেম্বর হলিধানী ইউনিয়ন বি.এন.পির সাংগঠনিক সম্পাদক থাকাবস্থায় চুয়াডাঙ্গায় এক নারী কেলেঙ্কারির ঘটনায় তার বিরুদ্ধে মামলা হলে, তৎকালীন সময়ে ঝিনাইদহের সংসদ সদস্যের হস্তক্ষেপে সেই দফায় রক্ষা পান আমির মেম্বর। এব্যাপারে হলিধানী ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জনাব মতিয়ার রহমান বলেন, আমি ঘটনাটি লোকমুখে শুনেছি। যেটা আমার ইউনিয়নের জন্য লজ্জাজনক এবং ব্যাপকভাবে ভাবমূর্তির ক্ষুন্ন হয়েছে। এসময় হলিধানী ইউনিয়ন বি,এন,পি’র সভাপতি আলফাজ উদ্দিন বিশ্বাস জানান, তিনি ঘটনাটি শুনেছেন এবং সে দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী অপকর্মে লিপ্ত থাকার কারণে তার বিরুদ্ধে দ্রুত দলীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে। আমরা কোন অনৈতিক কর্মকা-ের সমর্থন করিনা।