December 7, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

পীরগঞ্জে জেলে পল্লীতে হামলা ॥ গ্রেফতার সংখ্যা ৫৪ মুলহোতারা আটক না হওয়ায় জেলে পল্লীতে আতংক কাটেনি

পীরগঞ্জে জেলে পল্লীতে হামলা ॥ গ্রেফতার সংখ্যা ৫৪ মুলহোতারা আটক না হওয়ায় জেলে পল্লীতে আতংক কাটেনি

পীরগঞ্জে জেলে পল্লীতে হামলা ॥ গ্রেফতার সংখ্যা ৫৪ মুলহোতারা আটক না হওয়ায় জেলে পল্লীতে আতংক কাটেনি

পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি:
রংপুরের পীরগঞ্জে হিন্দুপাড়ায় হামলা, লুটপাট. ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ৩ মামলায় ৫৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনাস্থলে অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প বসানো হলেও হামলার মুলহোতারা গ্রেফতার না হওয়ায় জেলে পল্লীতে হিন্দুদের মাঝে রাতের আতংক কাটেনি। গতকাল বৃহস্পতিবার উপজেলার রামনাথপুর ইউনিয়নের বড় করিমপুর কসবা জেলে পল্লীতে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্থদের চোখেমুখে আতংকের ছাপ দেখা গেছে। গত রোববার(১৭ অক্টোবর) রাতে উপজেলার বড় করিমপুর কসবা জেলে পল্লীর বাসিন্দা প্রসন্ন কুমারের ছেলে পরিতোষ সরকার ফেসবুকে র একটি পোষ্টে মন্তব্যের ঘরে পবিএ কাবাঘরের ব্যঙ্গচ্ত্রি পোষ্ট করলে উত্তেজিত ধর্মান্ধ উগ্রবাদীরা মিছিল নিয়ে এসে জেলে পল্লীতে হামলা-ভাংচুর-লুটপাট করে বাড়ীঘরে অগ্নিসংযোগ করে। এতে ২৪ পরিবারের ৩১ টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। আর ৫৯ টি ঘরে ভাংচুর চালিয়ে লুটপাট করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার সরেজমিনে কসবা জেলে পল্লী পরিদর্শণে গিয়ে কথা হলে ক্ষতিগ্রস্থরা রাতের আতংকের কথা বলেন। এ ব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্থ দীপালী রানী, ননী গোপাল, দেবেন্দ্র চন্দ্র, সরেস চন্দ্র, উপিন চন্দ্র জানান, রাত হলেই হামার চোখোত নিন (ঘুম) নেই। ভয়ে ভয়ে থাকি, শত চেষ্টা করেও ঘুম আসে না। সামনের দিনগুলো ক্যাংকরি কাটপি, সেই চিন্তা হামাক তাড়া করে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভূক্তভোগী কয়েকজন হিন্দু পরিবারের সদস্য জানান, খেজমতপুর গ্রামের রাশেদ তালুকদার ও রোকন তালুকদার ওই রাতে হামলার নেতৃত্ব দিলেও তারা এখনো গ্রেফতার না হওয়ায় হামরা খুব ভয়ে আছি। তারা হামলাকারীদের অনেককেই চিনলেও নাম বলতে ভয় পাচ্ছেন। হামলার শিকার অনেকেই নাম না প্রকাশের শর্তে বলেন, এই গ্রামেই হামার জন্ম। আজকে যদি তাদের নাম কই, তাহলে পরবর্তীতে চোরাগোপ্তা হামলা হলে হামার ঘরোক (আমাদেরকে) কেটা বাচাবি? মুখে না বললেও তাদের চোখে মুখে এখনো আতংকের ছাপ স্পষ্ট। পীরগঞ্জ থানার ওসি সরেস চন্দ্র জানান, মুলহোতাদের চিহ্নিত করে উজ্জল হাসান ও আলামিন এবং কাবাঘরের ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশকারী পরিতোষকে ইতিমধ্যেই আটক করা হয়েছে। অন্যদেরকেও গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে। ওসি আরো জানান, জেলে পল্লীর মানুষের মধ্যে মানুষিক শক্তি ফিরতে শুরু করেছে। তারা আর আতংকিত নন। ইতিমধ্যেই ৩ টি মামলা করা হয়েছে। হিন্দুদের বাড়িঘরে ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটের ঘটনায় ১টি মামলার বাদী পীরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ইসমাইল হোসেন এবং এসআই সাদ্দাম হোসেন বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দুটি মামলা করেছেন।