October 27, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

পীরগঞ্জ চৈত্রকোল ইউনিয়নে মামা ভাগ্নের লড়াই, মাদক নিয়ে আহত ৫

পীরগঞ্জ চৈত্রকোল ইউনিয়নে মামা ভাগ্নের লড়াই, মাদক নিয়ে আহত ৫

পীরগঞ্জ চৈত্রকোল ইউনিয়নে মামা ভাগ্নের লড়াই, মাদক নিয়ে আহত ৫

পীরগঞ্জ(রংপুর) প্রতিনিধিঃ রংপুর পীরগঞ্জের চৈত্রকোল ইউনিয়নের চৈত্রকোল গ্রামে গত মঙ্গলবার আনুমানিক রাত ৯:০০ সীমান্তবর্তী গ্রাম টুকুরিয়ায় বাবর আলীর পুত্র লুৎফরের সাথে সেকেন্দারের পুত্র সিদ্দিকের বাকবিতন্ডায় আহত ৫। আহতরা হলো- মৃত আবুল হোসেনের পুত্র নুরুল তার দুই ছেলে মঞ্জুর (২২) ও স্বাধীন (১৮) খালশপীর কারিগরি কলেজের ছাত্র, লুৎফরের পুত্র মোস্তাফিজুর এবং সিরাজুল(২৪) ট্রলির হেলপার কাম ড্রাইভার। আহতরা বর্তমানে পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। সিদ্দিক লুৎফরের সাথে সম্পর্ক মামা ভাগ্নে। বাকবিতন্ডা মাদক কিন্তু নিয়ে।
সরেজমিনে বুধবার চৈত্রকোল গ্রামে গিয়ে গ্রামবাসীদের কাছ থেকে জানা যায়, গত রবিবার শাহাজাহান ৫০০০ পিছ এম্পল নিয়ে ঢাকা যাওয়ার পথে গোবিন্দগঞ্জে পুলিশের হাতে ধরা পরে। শাহাজাহান ধরা পরায় মঞ্জুরকে সন্দেহ করে সিদ্দিক গং। মঙ্গলবার দুপুরে এ বিষয় নিয়ে বসার ব্যবস্থা করতে চান সিদ্দিক ও লুৎফর। মঙ্গলবার রাত এশার নামাজের পর সিদ্দিক লুৎফরের এ বিষয় নিয়ে বাক বিতন্ডার এক পর্যায়ে সংঘর্ষ লাগে। সংঘর্ষে এন্টি কাটার দিয়ে ৫ জনের বুক,পেট হাত চিড়ে দেয় দুবৃত্তকারীরা। আহতরা জানায় সিদ্দিকের ছেলে সাগর(২২),কাদেরের ছেলে এরশাদ(৩৫),সোলজারের ছেলে সুমন(৩২) ও বাবু (১৮) এবং সিদ্দিক ক্ষুর, ছোরা, চাকু নিয়ে তাদের উপর হামলা করে। এ ব্যাপারে লুৎফরের সাথে কথা হলে জানায় স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী সিদ্দিক দীর্ঘদিন থেকেই মাদক চোরাকারবারীর ব্যবসা করে আসছে। বিভিন্ন সময় মিঠাপুকুর , গোবিন্দগঞ্জে তার সাপ্লাইয়াররা পুলিশের হাতে ধরাও পরে। গত রবিবার শাহাজাহান ধরা পরায় মঞ্জুরকে পীরগঞ্জ সদরে দেখায় সন্দেহ করে সিদ্দিক তাই মঞ্জুরকে হত্যার উদ্দেশ্যেই তারা এই হামলা চালায় পরিকল্পিতভাবে। এ ব্যাপারে থানায় এখনও অভিযোগ হয়নি আহতদের শারীরিক অবস্থা সুস্থ হলে থানায় অভিযোগ করা হবে। সিদ্দিকের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। বৃহস্পতিবার বিকাল পর্যন্ত আহতরা পীরগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি আছে।