October 18, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

পুলিশ চাকুরি দেওয়ার কথা বলে সাড়ে ৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে ভুয়া পুলিশের কুকার গ্রেফতার

পুলিশ চাকুরি দেওয়ার কথা বলে সাড়ে ৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে ভুয়া পুলিশের কুকার গ্রেফতার

পুলিশ চাকুরি দেওয়ার কথা বলে সাড়ে ৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে ভুয়া পুলিশের কুকার গ্রেফতার

ঝিনাইদহ-
পুলিশ কনস্টবলের চাকুরি দেওয়ার কথা বলে দুই যুবকের কাছ থেকে সাড়ে ৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে মহাসিন আলী (৪৭) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ। শনিবার ভোরে ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ উপজেলার পিরোজপুর গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কালীগঞ্জ থানার অফিসার-ইন-চার্জ মুহাঃ মাহফুজুর রহমান মিয়া। কালীগঞ্জ থানার এসআই জাকারিয়া মাসুদ জানান, মহাসিন নিজেকে বিভিন্ন স্থানে পুলিশের সরকারি কুকার পরিচয় দিত। এ ছাড়া তার পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সাথে ভাল খাতির রয়েছে বলেও সাধারন মানুষের কাছে নিজেকে জাহির করতো। এসব পরিচয় দিয়ে সে কখনো সাধারন মানুষকে পুলিশ কনস্টেবলের চাকুরী আবার কখনো সরকারি কুকারের চাকুরী দেওয়ার কথা বলে টাকা হাতিয়ে নিত। মহাসিন ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ উপজেলার ফয়লা গ্রামের জমজ দুই ভাই শাকিরুল ইসলাম (২১) ও রাকিবুল ইসলাম (২১) কে পুলিশের কনস্টেবল পদে চাকুরী দেওয়ার কথা বলে সাড়ে ৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। তারা ওই গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে। পেশায় দু’জনই ছাত্র। টাকা নেওয়ার পর মহাসিন এক ব্যক্তিকে পুলিশের ভুয়া ওসি বানিয়ে তাদের সাথে মোবাইলে কথা বলিয়ে দেয় চাকুরী প্রার্থি দুই যুবককে। বিষয়টি রহস্যজনক মনে হলে তারা পুলিশ জানালে পুলিশ মহাসিনকে গ্রেফতার করে। এসআই জাকারিয়া আরো জানান, প্রতারক মহাসিন শুধু দুই ছাত্রই নয় কালীগঞ্জ উপজেলার দামোদরপর গ্রামের আবদুল হামিদ মোল্ল্যার ছেলে মেহেদী হাসান (২৮) কে পুলিশের সহকারি কুকার পদে চাকুরী দেওয়ার কথা বলে ১৩ হাজার ৫শ টাকা হাতিয়ে নেয়। কালীগঞ্জ থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) মুহাঃ মাহফুজুর রহমান মিয়া জানান, পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকুরী ও পুলিশের সহকারি কুকারের চাকুরী দেওয়ার কথা বলে একাধিক ব্যক্তির কাছ থেকে প্রায় ৯ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক মহাসিন। অভিযোগ পাওয়ার পর তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।