August 2, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

বীরগঞ্জে কিছুতেই থামছে না ড্রাম ট্রাক, ঘটছে সড়ক দূর্ঘটনা

বীরগঞ্জে কিছুতেই থামছে না ড্রাম ট্রাক, ঘটছে সড়ক দূর্ঘটনা

বীরগঞ্জে কিছুতেই থামছে না ড্রাম ট্রাক, ঘটছে সড়ক দূর্ঘটনা

খায়রুন নাহার বহ্নি, বীরগঞ্জ(দিনাজপুর)প্রতিনিধি ঃ দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার শতগ্রাম ইউনিয়নের ঝাড়বাড়ী শান্তির মোড় থেকে বটতলা হয়ে আত্রাই নদী পর্যন্ত গ্রামের ছোট রাস্তায় বালু বোঝাই ভারি ৬ চাকা ও ১০ চাকার ড্রাম ট্রাক চলাচলের কারণে দূর্ঘটনা দিন-দিন বেড়েই চলছে সেই সাথে পাকা-কাচা সড়ক ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।শনিবার রাত ৮ টায় ঝাড়বাড়ীহাট থেকে বাড়ী ফেরার পথে বলদিয়াপাড়া গ্রামে ঝাড়বাড়ী-জয়গঞ্জ আত্রাই খেয়াঘাট পয়েন্ট থেকে বালু বোঝাই ড্রাম ট্রাকের ধাক্কায় গুরুতর আহত হয়েছেন গড়ফতু গ্রামের আব্দুল বারেকের ছেলে আব্দুল খালেক। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাঁকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।বালু বোঝাই ভারি ড্রাম ট্রাক চলাচল বন্ধ সহ সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে রাতের-আঁধারে অপরিকল্পিত অবৈধ ভাবে বালুর গাড়ি চলাচল বন্ধ করার দাবি ও পরিবেশ রক্ষার্থে সচেতন এলাকাবাসী ঝাড়বাড়ীর উদ্যোগে গত ২৫ই অক্টোবর ২০ইং তারিখে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। এছাড়াও ৭ই ডিসেম্বর ২০ইং তারিখে ওই পয়েন্ট থেকে বালু নিয়ে যাওয়ার পথে কুষ্টিয়া বডির সেলো মেশিন চালিত নছিমন চাপায়নামা বলদিয়াপাড়া গ্রামের ফারুক হোসেনের মেয়ে ফারজানা আক্তার (৪) নামে এক শিশুর অকাল মৃত্যু হয়। পরে ওইদিনে সন্ধ্যায় চালকের শাস্তির দাবী সহ ড্রাম ট্রাক ও বালু মহল বন্ধের দাবীতে ঝাড়বাড়ী চৌরাস্তায় এলাকাবাসীদের মানববন্ধন শেষে বিক্ষোভ মিছিল করেও এখনো বন্ধ হয় নি ড্রাম ট্রাক।এলাকাবাসী জানান, ইজারাদারদের দাপটে এই ড্রাম ট্রাক গাড়িগুলো দিনদিন আরো বেপরোয়া হয়ে চলাচল করতেছে। পর্যাপ্ত পরিমানের বালু লোড নিয়ে তাদের নির্দিষ্ট সাইট নিয়ে চলতেছে না, এতে সড়ক দুর্ঘটনা ঘটতেছে। রাত ২টা পর্যন্ত চলাচল করায় শব্দ দূষণের কারণে ঘুম সহ নানান সম্যাসার সম্মুখীন আমরা হচ্ছি। ড্রাম ট্রাক সহ বালু মহল বন্ধ করার জন্য জেলা প্রশাসকের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকার সর্বস্থরের জনগণ।ঝাড়বাড়ী পরিবেশ উন্নয়ন পরিষদের আহ্বায়ক শেখ মো. জাকির হোসেন জানান, আমাদের ছোট রাস্তা দিয়ে বালু বোঝাই ১০ চাকার ড্রাম ট্রাক, ট্রাক্টর, ট্রলিতে করে চলাচলের ফলে গ্রামীণ পাকা ও মাটির সড়কগুলো ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে যাতায়াতের একেবারেই অনুপযোগী হয়ে পড়ছে। এসব বিষয়ে প্রতিবাদ করায় বালু মহল ইজারাদার নুর আলম মেম্বার আমাকে দেখে নিবে, বিভিন্ন হুমকি ধামকি দিচ্ছে ও ইতিপূর্বে পুলিশ দিয়ে হয়রানি করেছে।