September 22, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

বীরগঞ্জে জনপ্রিয়তা পেয়েছে বিষমুক্ত সবজি বিক্রয় কেন্দ্র

বীরগঞ্জে জনপ্রিয়তা পেয়েছে বিষমুক্ত সবজি বিক্রয় কেন্দ্র

বীরগঞ্জে জনপ্রিয়তা পেয়েছে বিষমুক্ত সবজি বিক্রয় কেন্দ্র

খায়রুন নাহার বহ্নি, বীরগঞ্জ(দিনাজপুর)প্রতিনিধি ঃ দেশের মানুষ যেমন রয়েছে স্বাস্থ্য ঝুকিতে তেমনি আক্রান্ত হচ্ছে নানা জটিল রোগে কারন দেশে সবজি উৎপাদনে ব্যাপক ভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে রাসায়নিক সার এবং কীটনাশক। দেশের মানুষ কে বিশ থেকে মুক্তি দিতে কৃষি বিভাগ সারা দেশে ৮উপজেলার ৮ইউনিয়নে স¦াস্থ্য ও পরিবেশ বান্ধব কৌশলের মাধ্যমে ফসল উৎপাদন প্রকল্প গ্রহণ করেছে। এ প্রকল্পের আওয়াতায় রংপুর বিভাগের দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার সাতোর ইউনিয়নকে সমন্বিত বালাই ব্যবস্থপনা (আইপিএম) মডেল ইউনিয়ন হিসেবে ঘোষনা করেছে।
এই ইউনিয়নে ৫০০জন কৃষক-কৃষাণী ২০টি দলে ভাগ হয়ে আইপিএম পদ্ধতির প্রশিক্ষণ নিয়ে ১০০একর জমিতে সারা বছর ধরে রাসায়নিক ও বিষমুক্ত লাউ, ফুলকপি, বাধাকপি,বেগুন,টমেটো, করলা, শসা ইত্যাদি উৎপাদন করছে। এছাড়াও জৈব প্রযুক্তি ও জৈব বালাই নাশক ব্যবহার করে অন্যান্য কৃষকরা নিরাপদ ও বিষমুক্ত সবজি উৎপাদন করছে।
উপজেলা কৃষি অফিসের উদ্যোগে উৎপাদিত সবজি বিক্রয়ের লক্ষ্যে বীরগঞ্জ পৌর শহরের দৈনিক বাজারে একটি নিরাপদ সবজি বিক্রয় কেন্দ্র চালু করা হয়েছে। ক্রেতা সাধারণকে নিরাপদ সবজি নিশ্চিত করাই হচ্ছে এই উদ্যোগের লক্ষ্য এবং উদ্যেশ্য বলে জানান কৃষি বিভাগ।
নিরাপদ সবজি ক্রয় করতে আসা আলহাজ্ব মো. তফিজ উদ্দিন জানান, এটি একটি ভালো উদ্যোগ। কৃষি বিভাগের উদ্যোগে এই বিক্রয় কেন্দ্রের পন্য নিরাপদ এবং বিষমুক্ত। এটি ক্রেতাদের জানাতে পারলে এবং ক্রেতাদের আশ্বস্ত করতে পারলে এই উদ্যোগ সফলতার মুখ দেখবে। আমরাও চাই নিরাপদ ও বিষমুক্ত সবজি কিনতে পারবো। কিন্তু কোথায় পাওয়া যাবে এটি আমাদের জানা ছিল না।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আফরোজ সুলতানা লুনা বলেন, কৃষি বিভাগের এই উদ্যোগটি নিঃসন্দেহে প্রসংশসার দাবি রাখে। এই প্রকল্পটি সারা দেশে ছড়িয়ে দিতে পারলে মানুষ অনেক রোগ থেকে রক্ষা পাবে। কারণ সবজিতে ক্ষতিকর রাসায়নিক সার এবং কীটনাশক ব্যবহারের ফলে মানুষ কিডনি, লিভার, চর্মরোগসহ মরণব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্ত হতে পারে। এ উদ্যোগের ফলে মানুষ অনেক জটিল রোগ এর থেকে পরিত্রাণ পাবে।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবু রেজা মোঃ আসাদুজ্জামান জানান, আইপিএম মডেল বলতে পরিবেশকে দুষণ মুক্ত রেখে এক বা একাধিক ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে ফসলের ক্ষতিকর পোকা ও রোগ-বালাইকে ফসল থেকে দুরে রেখে বিষ মুক্ত ফসল উৎপাদন করাকে বুঝায়।