December 7, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

বীরগঞ্জে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ ও শিশু সুরক্ষা বিষয়ে ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভা

বীরগঞ্জে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ ও শিশু সুরক্ষা বিষয়ে ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভা

বীরগঞ্জে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ ও শিশু সুরক্ষা বিষয়ে ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের সাথে মত বিনিময় সভা

খায়রুন নাহার বহ্নি, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ॥দিনাজপুরের বীরগঞ্জে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ ও শিশু সুরক্ষা বিষয়ে ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আব্দুল কাদের। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ফিল্ড সুপারভাইজার মোঃ আব্দুল আজিজ। বুধবার বিকেলে উপজেলা পরিষদ হলরুমে ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ বীরগঞ্জ এরিয়া প্রোগ্রামের আয়োজনে এপি ম্যানেজার মানুয়েল হাসদার সভাপতিত্বে বীরগঞ্জ এপির প্রোগ্রাম অফিসার ভিক্টরিয়া বিশ্বাস, দীপা রোজারিও, সতীশ চন্দ্র, জুনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার অনিন্দিতা কুন্ডুসহ সুজালপুর, পাল্টাপুর, নিজপাড়া ও মোহনপুর ইউনিয়নের ২০ জন ধর্মীয় নেতা উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনা সভায় ধর্মীয় নেতারা শিশু সুরক্ষা প্রসঙ্গে বলেন, অতীতের তুলনায় কমে গেলেও বাল্যবিবাহ দূর হয়নি। তারা যথাসাধ্য বাল্যবিবাহ বন্ধ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। অসচেতন মানুষ অনেক সময় নকল জন্মনিবন্ধন সনদ ও অন্যান্য অসুদপায় অবলম্বন করে এলাকার বাইরে নিয়ে গিয়ে গোপনে এসব বাল্য বিয়ে দিয়ে যাচ্ছেন। তারা আরও বলেন, কোভিড-১৯ এর মহামারী কারণে দীর্ঘদিন স্কুল বন্ধ থাকায় এলাকায় বাল্য বিবাহ যথেষ্ঠ বেড়েছে।
সভায় সামাজিক সচেতনতার সাথে সাথে সরকারী আইনি নির্দেশনা ও প্রয়োগ জোরদার হলে শিশু সুরক্ষা ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ করা সম্ভব। এর জন্য সমন্বিত উদ্যোগ ও সামাজিক আন্দোলন প্রয়োজন। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ফিল্ড সুপার ভাইজার মোঃ আব্দুল আজিজ শিশু সুরক্ষায় ওয়ার্ল্ড ভিশনের কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, তার প্রতিষ্ঠান ও শিশু সুরক্ষা, বাল্যবিবাহ, যৌতুক, নির্যাতনসহ বিভিন্ন বিষয়টি মাথায় রেখে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রধান অতিথি ইউএনও মোঃ আব্দুল কাদের বলেন, শিশু সুরক্ষা নিশ্চিত করতে ও বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে প্রশাসনিক পদক্ষেপের বিষয় আরো জোরদার করার বিষয়টি তিনি দেখবেন। তবে কমিউনিটি লেভেলে শিশু ও নারী উন্নয়ন বিষয়ক সচেতনতা মূলক কার্যক্রম চলমান থাকাও প্রয়োজন।
পাশাপাশি সকল শিশু যেন স্কুলে যায় তা নিশ্চিত করতে হবে। তিনিওয়ার্ল্ড ভিশনের এই কার্যক্রমকে সমর্থন জানান এবং ভবিষত্যেও পাশে থাকার আশ্বাস দেন। এপি ম্যানেজার মানুয়েল হাসদা বলেন, ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ শিশু সুরক্ষা ও বাল্য বিবাহ বন্ধসহ বিভিন্ন ধরনের সামাজিক কার্যক্রমে ব্যাপক ভূমিকা পালন করে চলছেন। তারা আগামীতেও এ কার্যক্রম চলমান রাখবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন।
তিনি উপস্থিত সকলের উদ্দ্যেশে নিরাপদে স্কুলে ফিরি ক্যাম্পেইন কার্যক্রম বিষয়ে সহযোগিতার মাধ্যমে সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন।