October 27, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

মুজিব শতবর্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সকল ভাল কাজ হাতে নিয়েছেন-জেলা প্রশাসক দিনাজপুর

মুজিব শতবর্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সকল ভাল কাজ হাতে নিয়েছেন-জেলা প্রশাসক দিনাজপুর

মুজিব শতবর্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সকল ভাল কাজ হাতে নিয়েছেন-জেলা প্রশাসক দিনাজপুর

কিশোরগঞ্জ(নীলফামারী)প্রতিনিধিঃ
নীলফামারীর জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী বলেন-মুজিব শতবর্ষ সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সকল ভাল কাজ হাতে নিয়েছেন।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভাল কাজগুলোর একটি কাজ হল ভূমিহীন ও গৃহহীনদের উপহার হিসেবে ঘর দেয়া। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগ দেশে কোন ভূমিহীন ও গৃহহীন ব্যক্তি থাকবে না। সবার মাথায় ছাদ থাকবে। তিনি আরও বলেন- মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর নিমার্ণে কোন অনিয়ম বরদাস্ত করা হবে না।
উপকারভোগীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন- এঘরগুলো মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনাদের উপহার দিয়েছেন। আপনাদের ঘরগুলো নিমার্ণ কাজ নিজেই তদারকি করবেন। কাজ বুঝে নিবেন। মঙ্গলবার দুপুরে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার নিতাই ইউনিয়নের বাড়ীমধুপুর গ্রামে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার ভূমিহীন ও গৃহহীনদের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের (২য় পর্যায়) ঘর নিমার্ণে উপকারভোগীদের সাথে মতবিনিময়কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথাগুলো বলেন।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার রোকসানা বেগমের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ্ মোঃ আবুল কালাম বারী পাইলট। বক্তব্য রাখেন অফিসার ইনচার্জ আব্দুল আউয়াল, নিতাই ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক উজ জামান ফারুক, বাহাগিলী ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান শাহ্, সাংবাদিক শামিম হোসেন বাবু, উপকারভোগী হাওয়াতোন বেওয়া, আনোয়ার হোসেন লাভলু, নুর নাহার বেগম, নেকি বেগম, আনোয়ারা বেগম।
উপস্থিত ছিলেন নীলফামারী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার নাহিদুল হক, সাদিয়া আফরীন এ্যানী, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকতার্ আবু হাসনাত সরকার, চাঁদখানা ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজার রহমান হাফি।
দ্বিতীয় পর্যায়ে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প হতে নিতাই, বাহাগিলী ও চঁাদখানা ইউনিয়নে ১ শ’ ৫০ টি ঘর নিমার্ণ করা হচ্ছে। উপকারভোগী প্রত্যেককে ২ শতাংশ করে জমি দেয়া হবে। প্রতিটি ঘর নিমার্ণে ১ লক্ষ ৭১ হাজার টাকা করে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প হতে এ ঘরগুলো নিমার্ণ করা হচ্ছে। উল্লেখ্য যে- প্রথম পর্যায়ে এ উপজেলায় ১ শ’ ৪০ উপকারভোগীকে ঘর নিমার্ণ ও ২ শতাংশ করে জমি দেয়া হয়।