October 24, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে খানসামায় কাজে আসছে না জনস্বাস্থ্যের হাত ধোয়ার বেসিন

রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে খানসামায় কাজে আসছে না জনস্বাস্থ্যের হাত ধোয়ার বেসিন

রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে খানসামায় কাজে আসছে না জনস্বাস্থ্যের হাত ধোয়ার বেসিন

এস.এম.রকি, খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের বাস্তবায়নে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্বরে নির্মিত হাত ধোয়ার বেসিনটি রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে কাজে আসছে না। নির্মাণের কয়েকদিন পর পানি ও সাবান থাকলেও এখন অকেজো হয়ে পড়ে আছে। করোনা মহামারীতে হাত ধোয়ার জন্য বেসিনটি তৈরী করা হলেও সেটি বর্তমানে কাজে আসছে না সাধারণ মানুষ ও চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের ।
মঙ্গলবার সরেজমিনে দেখা যায়, প্রায় ৩০ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মিত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের পাশেই গত বছরে নির্মাণ করা হয় হাত ধোয়ার বেসিন। সেটির এখন হাত ধোয়ার টেপ ও টাইলস ভেঙ্গে পড়ে আছে আর বেসিনে ধুলোবালিও ময়লা জমে আছে। সেখানে নেই সাবানও। তদারকি না থাকায় হাত ধোয়ায় এসব বেসিন কোনো কাজেই আসছে না।
স্থানীয়রা জানান, নির্মাণের কয়েকদিন পর হতে বেসিনের টেপ কয়েক দফায় পরিবর্তন করা হয়েছে। কিন্তু সেগুলো নিম্নমানের হওয়ায় বেশিদিন স্থায়ীত্ব হচ্ছে না।
উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মিরাজুল ইসলাম জানান, নির্মাণ ব্যয়সহ বেসিন নির্মাণের তথ্য জানতে গেলে তথ্য অধিকার আইনে আবেদন করতে হবে। তবে বেসিনের ছোট-খাট কোন সমস্যা হলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ আমাদের জানালে মেরামত করা হবে।
এ বিষয়ে দিনাজপুর জনস্বাস্থ্য বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মুরাদ হোসেন বলেন, করোনা মহামারীতে সাধারন মানুষদের হাত ধোয়ার জন্য এসব বেসিন নির্মাণ করা হয়েছে। নির্মাণের পর এগুলো সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে হস্তান্তর করা হয়। সেগুলো রক্ষণাবেক্ষণের দায় তাদেরই। হাসপাতালে নির্মিত বেসিন কেন অকেজো অবস্থায় আছে তা খোঁজ নিয়ে দ্রত সময়ে মেরামতের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।