September 18, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

রানা প্লাজায় আহত গাইবান্ধার আফরোজা পেল পাকা বাড়ী

রানা প্লাজায় আহত গাইবান্ধার আফরোজা পেল পাকা বাড়ী

রানা প্লাজায় আহত গাইবান্ধার আফরোজা পেল পাকা বাড়ী

পাকা বাড়ি পেলেন রানা প্লাজা ট্র্যাজেডিতে আহত গাইবান্ধার আফরোজা পাকা বাড়িতে ঠাঁই হলো সাভারের রানা প্লাজার ধ্বংসস্তুপের নিচে পড়ে আহত হওয়া আফরোজা বেগমের।
রোববার (২৯ আগস্ট) বিকেলে উপজেলার পশ্চিম দামোদরপুর গ্রামের নিজ জমিতে ব্র্যাকের সহায়তায় পাকা ঘর তৈরি করে আফরোজাকে হস্তান্তর করা হয়।
একই সঙ্গে তাকে দেওয়া হয় এক লাখ ৬০ হাজার টাকার চেক। আনুষ্ঠানিকভাবে ওই ঘরটির উদ্বোধন করেন সাদুল্লাপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাহারিয়া খান বিপ্লব।
এসময় উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. রোকসানা বেগম, দামোদরপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এজেডএম সাজেদুল ইসলাম স্বাধীন, ব্র্যাক-মানবিক সহায়তা কর্মসূচির মাঠ সমন্বয়কারী পার্থ প্রতিম দাস, দাবির আরএম ইয়াকুব আলী, প্রগতির আরএম ফিরোজ কবির, জেলা প্রতিনিধি মোশারফ হোসেন, দাবির এএম জিয়াউর রহমান, প্রগতির এএম জাহাঙ্গীর আলম ও সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসূচির সংগঠক মিনারা খাতুন প্রমখ।
এ অনুষ্ঠানে ব্র্যাক-মানবিক সহায়তা কর্মসূচির মাঠ সমন্বয়কারী পার্থ প্রতিম দাস বলেন, রানা প্লাজা ভবন ধসের ঘটনায় আফরোজা বেগম গুরুতর আহত হয়েছিলেন। এরপর থেকে তাকে চিকিৎসাসেবা দিয়ে সুস্থ করার জন্য পাশে দাঁড়ায় ব্র্যাক। তাকে টানা চিকিৎসাসেবা দেওয়ার একপর্যায়ে ৬ লাখ ৪০ হাজার ৫০০ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করে দেওয়া হলো পাকা বাড়ি। সেই সঙ্গে আফরোজার জীবন মানোন্নয়নে এক লাখ ৬০ হাজার টাকার চেক দেওয়া হয়।
২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিলে ধসে গিয়েছিল সাভারের রানা প্লাাজা। এদিনে ভবনটির সপ্তম তলায় গার্মেন্টসে হেলপার হিসেবে কাজ করছিলেন আফরোজা বেগম। এসময় ভবনের ধ্বংসস্তুপের নিচে পড়ে আহত হয়েছিলেন তিনি।