September 21, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

রাষ্ট্রায়ত্ত ৬টি চিনিকল বন্ধের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে রংপুরে শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের মানববন্ধন।

রাষ্ট্রায়ত্ত ৬টি চিনিকল বন্ধের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে রংপুরে শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের মানববন্ধন।

রাষ্ট্রায়ত্ত ৬টি চিনিকল বন্ধের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে রংপুরে শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের মানববন্ধন।

সুরেশ বাসফোর, রংপুরঃ শ্যামপুর (রংপুর) চিনিকলসহ রাষ্ট্রায়ত্ত ৬টি চিনিকল বন্ধের সিদ্ধান্ত বাতিল, শ্রমিক কর্মচারীদের বকেয়া বেতন প্রদান, আখচাষীদের সমুদয় আখ লাভজনক মূল্যে অবিলম্বে ক্রয়ের দাবিতে গতকাল ২৯ ডিসেম্বর ২০২০ মঙ্গলবার বাংলাদেশ শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশন রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।সকাল ১১টায় রংপুর প্রেসক্লাব চত্তরে অনুষ্ঠিত এই মানববন্ধনে সংগঠনের জেলা আহবায়ক শাহিদুল ইসলাম সুমনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বাসদ (মার্কসবাদী) রংপুর জেলার সমন্বয়ক কমরেড আনোয়ার হোসেন বাবলু, সদস্য আহসানুল আরেফিন তিতু, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সুরেশ বাসফোর। নেতৃবৃন্দ বলেন শিল্পে পিছিয়ে পড়া রংপুর বিভাগে যে গুটিকতক কলকারখানা আছে, তার মধ্যে শ্যামপুর (রংপুর) চিনিকল অন্যতম ভারী শিল্প। শত শত শ্রমিক-কর্মচারী, হাজার হাজার আখচাষী এবং প্রত্যক্ষ পরোক্ষভাবে কয়েক লক্ষ পরিবার এই চিনিকলের উপর জীবিকা নির্বাহ করে। করোনার প্রভাবে লক্ষ লক্ষ মানুষ কাজ হারিয়ে এখন বেকার। তাই দরকার ছিলো নতুন কর্মস্থান সৃষ্টি করা। অথচ তা না করে লোকসানের অজুহাতে চিনিকল বন্ধের মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ মানুষকে পথে বসানোর অমানবিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার। কিন্তু চিনিকলের শ্রমিক-কর্মচারী, আখচাষী কেউই এই লোকসানের জন্য বিন্দুমাত্র দায়ী নয়। বরং চিনিকল অলাভজনক হওয়া ও লোকসান করার ক্ষেত্রে দায়ী সরকারের ভুলনীতি ও দুর্নীতি, মান্ধাতা আমলের অকেজো পুরাতন যন্ত্রপাতি। তাই শ্যামপুর চিনিকল বন্ধ নয়, আধুনিকায়ন করতে হবে। অবিলম্বে আখচাষীদের সমুদয় আখ লাভজনক দামে ক্রয় করতে হবে। চিনিকলের কৃত্রিম লোকসানের সাথে যুক্ত দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের শাস্তি দিতে হবে।