November 27, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

সংসার না করায় হামলা, মামলা ও প্রাণনাশের হুমকি বিপাকে বাদী

সংসার না করায় হামলা, মামলা ও প্রাণনাশের হুমকি বিপাকে বাদী

সংসার না করায় হামলা, মামলা ও প্রাণনাশের হুমকি বিপাকে বাদী


মোঃ আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:
দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার ১০ নং হরিরামপুর ইউনিয়নের মধ্যপাড়ায় তালাক প্রাপ্ত স্ত্রী কে নিয়ে পুনরায় সংসার না করায় সাবেক স্ত্রী ও তার লোক জনের হামলা, মামলার স্বীকার হয়ে পঙ্গুত্ব জীবন যাপন করতে হচ্ছে সোলায়মান বাদশাকে। জানা গেছে, মধ্যপাড়া খনিজশিল্পাঞ্চল এলাকার মাইক ও ডেকোরেটর ব্যবসায়ী মো: সোলায়মান বাদশার সঙ্গে পার্শ¦বর্তী মহল্লার মৃত্যু: সোবাহান মিয়ার মেয়ে সোবেজা খাতুনের বিগত ২৫/০২/২০০২ইং সালে বিবাহ হয়। সংসার জীবনে তাদের ঘরে এক কণ্যা ও এক পুত্র সন্তানের জন্ম হয়। দীর্ঘ ২০ বছর সংসার করার পর তাদের মধ্যে সম্পর্কেও অবনতি হলে স্ত্রীর ব্যবহারে অতিষ্ট হয়ে গত ২০/০৯/২০২১ইং তারিখে দিনাজপুর জেলার নোটারি পাবলিক এবং কাজী দ¦ারা রেজিস্ট্রিকৃত ভাবে সোবেজা খাতুনকে তালাক প্রদান পূর্বক বিবাহ সম্পর্ক ছিন্ন করে। তালাক প্রদানের ঘটনায় তালাক প্রাপ্ত স্ত্রী সোবেজা খাতুন ও তার লোক জন ক্ষীপ্ত হয়ে পরিকল্পিত ভাবে ঐ দিন দিবাগত রাত্রীতে সোলায়মানের বাড়িতে দলবল সহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আক্রমণ চালায় এবং লুটপাট করে। এতে হামলার কারণে সোলায়মানের পায়ের হাঁড় ভেঙ্গে যায় এবং বাড়ির মূল্যবান আসবাবপত্র সহ লক্ষাধীক টাকার ক্ষতি সাধন হয়। ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার লক্ষ্যে ১০/১০/২০২১ ইং দিনাজপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল জর্জ আদালতে হয়রানি মূলক মামলা দাখিল করে। তালঅক প্রাপ্ত স্ত্রীকে নিয়ে পুনরায় সংসার করতে বাধ্য করার ষড়যন্ত্রের পাশাপাশি মামলা ও প্রাণনাশের হুমকি অব্যহত থাকায় অসহায় সোলায়মান বাদশা চরম বিপাকে দিনানিপাত করছে।
স্ত্রীকে তালাক প্রদানের পরেও হয়রানি মূলক শিশু ও নারী নির্যাতন মামলার শিকার হয়ে ভুক্তভোগী স্বামী ইতিমধ্যে সোবেজা খাতুন সহ ৬ জনকে আসামি করে বিঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালত-৫ পার্বতীপুরে মামলা করেছে। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী সোলায়মান বাদশা বলেন, আমি আদালতের মাধ্যমে আইনি প্রক্রিয়ায় স্ত্রী কে তালাক দিয়েছি এতে ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রীর লোকজন আমাকে মারধর করে পঙ্গু করে দিয়েছে আমি ক্রাচ এর উপর ভর করে অতিকষ্টে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে যাতায়াত করছি।