October 27, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

সাদুল্লাপুরে অবৈধ টানা বিদ্যুৎ সংযোগের তারে জড়িয়ে সন্তান সম্ভবা এক নারী মৃত্যুবরন

সাদুল্লাপুরে অবৈধ টানা বিদ্যুৎ সংযোগের তারে জড়িয়ে সন্তান সম্ভবা এক নারী মৃত্যুবরন

সাদুল্লাপুরে অবৈধ টানা বিদ্যুৎ সংযোগের তারে জড়িয়ে সন্তান সম্ভবা এক নারী মৃত্যুবরন

গাইবান্ধা ঃ গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলায় অবৈধ টানা বিদ্যুৎ সংযোগের তারে জড়িয়ে ধান ক্ষেতের মধ্যে সুমি বেগম (২২) নামের সন্তান সম্ভবা এক নারী মৃত্যুবরন করেছে। আজ (২০, এপ্রিল) মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় উপজেলার নলডাঙ্গা প্রতাপ গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। নিহত সুমি একই উপজেলার পশ্চিম খামার দশলিয়া গ্রামের মৃত সমুর আলীর মেয়ে ও বাবু মিয়ার স্ত্রী।
নিহতের স্বামী বাবু মিয়া বলেন, ৬ মাস আগে সুমি কে বিয়ে করে তাকে নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে থাকেন। ঘটনার দিন সুমি বেগম বাড়ির অদুরে ঘাস কাটতে যায়। এ সময় উপজেলার নলডাঙ্গা প্রতাপ গ্রামের মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে আকাবর আলীর বাড়ি থেকে সুন্দরগজ্ঞ উপজেলার বিশ্বাস হলদিয়া গ্রামের মৃত হামিদ মিয়ার ছেলে মুকুল মিয়া বাড়ি নির্মাণের জন্য প্রায় একহাজার ফিট নিম্নমানের তার দিয়ে অবৈধ সংযোগ নিয়ে আনুমানিক ৬ মাস ধরে বাড়ির নির্মান কাজ করে আসছিলেন।
এমতবস্থায় অবৈধ ভাবে ধান ক্ষেতে ঝুলিয়ে পড়া বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে সুমি বেগম ঘটনাস্থলে মৃত্যু বরন করেন। খবর পেয়ে সাদুল্লাপুর থানার উপপরিদর্শক রাকিবুল ইসলাম ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরহর্তাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান। তদন্তকারী কর্মকর্তা রাকিবুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মৃত্যুর বিষয়ে পরিবারের কোন অভিযোগ থাকলে তা তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বিদ্যুত বিভাগের সাদুল্লাপুর সাবজোনের ডিজিএম মোজাম্মেল হক বলেন, সাইড লাইনের বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে যেসব অবৈধ সংযোগ আমাদের নজরে পড়ে তাৎক্ষনিক ভাবে আমরা সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নিয়ে থাকি। কেউ যদি লুকোচুরি করে সাইড লাইন দেয় তার দায়ভার ওই গ্রাহক কে নিতে হবে। তারপরেও ঘটনাটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সাদুল্লাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাসুদ রানা বলেন, বিদ্যুতপৃষ্ট হয়ে মৃত নারীর লাশ ময়না তদন্তের জন্য উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। ময়না তদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর এ ব্যাপারে নিহতের পরিবার আইনগত ব্যবস্থা নিতে পারবেন।