December 2, 2021

Jagobahe24.com

সত্যের সাথে আপোসহীন

সুন্দরগঞ্জে স্বামীকে হত্যার দ্বায় স্বীকার করেছে স্ত্রী

সুন্দরগঞ্জে স্বামীকে হত্যার দ্বায় স্বীকার করেছে স্ত্রী

সুন্দরগঞ্জে স্বামীকে হত্যার দ্বায় স্বীকার করেছে স্ত্রী

গাইবান্ধা ঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার তারাপুর ইউনিয়নের খোদ্দা নামাপাড়া গ্রামের স্বামী সুজন রায়কে হত্যার দ্বায় স্বীকার করেছে অন্তসত্ত্বা স্ত্রী স্মৃতি রানী। থানার পুলিশ পরিদর্শক বুলবুল ইসলাম জানান, গত শুক্রবার দিবাগত রাতে আটক স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায় স্বামীকে হত্যার কথা স্বীকার করে। গভীর রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক স্বামীর গলায় রশি পেঁচিয়ে তাকে হত্যা করে। অন্য কারো পরামর্শে সে এ কাজ করেনি। নিজের পরিকল্পনা মোতাবেক সে ঘটনাটি ঘটিয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে স্বামী ও স্ত্রী খাওয়া দাওয়া করে একই রুমে শুয়ে পড়ে। গভীর রাতে স্ত্রী জেগে দেখে স্বামী খাটের মধ্যে নেই, সে ঘরের মেঝেতে পাটির মধ্যে শুয়ে রয়েছে। শুক্রবার সকালে স্ত্রী ঘুম থেকে উঠে রান্নার কাজ শুরু করে। সুজনের মা ঘরে গিয়ে দেখে ছেলে মেঝেতে শুয়ে রয়েছে। মায়ের ডাকে ছেলে জেগে না উঠায়, চিৎকার করতে থাকে। পরিবারের সদস্যরা এসে দেখে সুজন মারা গেছে। সুজনের বাবা-মার দাবি স্ত্রী তাকে খুন করেছে। সে কারণে পুলিশ স্ত্রী স্মৃতি রানীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে আসে। গত ৯ মাস পূর্বে সুজনের সাথে স্মৃতির বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে কলহ্ লেগেই রয়েছে। স্মৃতি পাশ্ববর্তী সাদুল্লাপুর উপজেলার নলডাঙ্গা গ্রামের কৃষ্ণ চন্দ্রের কন্যা। এনিয়ে থানায় হত্যা মামলা হয়েছে।