November 27, 2022
অপরাধ

সুন্দরগঞ্জে জীবিত ব্যক্তিকে মৃত্যু দেখিয়ে রেশন কার্ডের চাল উত্তোলন

গাইবান্ধাঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নে খাদ্য অধিদপ্তরের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির চাল নিয়ে ডিলারের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। গত ৩০-১০-২০২২ ইং তারিখে জেলা প্রশাসক বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীরা।অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শ্রীপুর ইউনিয়নের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির দক্ষিণ শ্রীপুর সখের বাজারের ডিলার শহিদুল ইসলাম ও উত্তর শ্রীপুর বড়ুয়ার হাটের মাহবুবর রহমান (টেক্কা) জীবিত ব্যক্তিকে মৃত দেখিয়ে কার্ডের নাম কেটে অন্যজনের নাম তালিকাভুক্ত করেছেন। ফলে প্রকৃত অসহায় ভোক্তারা এ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।অভিযোগকারীরা জানান, ডিলার শহিদুল ইসলাম ও মাহবুবর রহমান টেক্কা আমরা জীবিত থাকাকালীন মৃত্যু দেখিয়ে আমাদের নাম কর্তন করে অন্য লোকদের তালিকাভুক্ত করেছে। আমরা বিষয়ে ডিলারকে বললে জবাবে বলেন অন্য নামে চালের নাম দেওয়া হয়েছে।আমরা অনেক কষ্ট করে এই টাকা জোগাড় করে চালটি সংগ্রহ করতাম। অনৈতিকভাবে আমাদের নাম কেটে দেওয়ার কারণ কি। আমরা এদের শাস্তির দাবী জানাচ্ছি।সরেজমিনে ডিলার মাহবুবুর রহমান টেক্কার সাথে যোগাযোগ করা হলে দেখা যায় তিনি ১১৭০ নাম্বার কার্ডধারী আবিজান নেছাকে প্রায় ১ কেজি চাল কম দেন। দেখা যায় যে বালতি দিয়ে চাল পরিমাপের জন্য দেয়া হয় সেটার ওজনও প্রায় ১/২ কেজির মতো। প্রশ্নের জবাবে ডিলার সাংবাদিকদের এড়িয়ে যান এবং চাল কম দেয়ার বিষয় নিজের মুখে স্বীকার করেন।
এ দিকে দক্ষিণ শ্রীপুর সখের বাজারে ডিলার শহিদুল ইসলামের নিকট যোগাযোগের চেষ্টা করলে তাকে পাওয়া যায় নি। লোকমুখে জানা যায় তিনি নাকি সখের বাজারের চাল মাঠের হাট নামক স্থানে বিতরণ করেন। ডিলারের নির্দিষ্ট স্থান পরিবর্তনের নেপথ্যে রহস্য কি?
সচেতন মহল বলছেন কর্তৃপক্ষ পারে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে সাধারণ জনগণের ভোগান্তি দূর করতে।

Jamie Belcher

info@jagobahe24.com

News portal manager

Follow Me:

Comments