February 29, 2024
সাহিত্য

আন্দোলন সংগ্রামে নাট্যকর্মীদের অবদান চির ভাস্বর হয়ে থাকবে-স্পীকার

ঢাকাঃ
বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি বলেছেন, নাটক সমাজ, রাষ্ট্র ও ইতিহাসের কথা বলে। দেশের সামাজিক ও অর্থনৈতিক অবস্থা নাটকে প্রতিফলিত হয় বলেই নাটক সমাজের দর্পন। তিনি বলেন, যে কোন গণতান্ত্রিক আন্দোলনে জনগণকে সম্পৃক্ত করতে নাটক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে মহান মুক্তিযুদ্ধ পর্যন্ত আন্দোলন সংগ্রামে নাটক, নাট্যকার ও নাট্যকর্মীদের অবদান চির ভাস্বর হয়ে থাকবে।
তিনি আজ রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে পদাতিক নাট্যসংসদের আয়োজনে 'সৈয়দ বদরুদ্দিন হোসাইন স্মৃতি নাট্যোৎসব এবং স্মারক সম্মাননা ২০২২-২৩' শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে এসব কথা বলেন।
এসময় তিনি 'সৈয়দ বদরুদ্দিন হোসাইন স্মৃতি নাট্যোৎসব এবং স্মারক সম্মাননা ২০২২-২৩' এর শুভ উদ্বোধন করেন।
পদাতিক নাট্যসংসদের সভাপতি এবং উৎসব উদযাপন পর্ষদ ২০২২-২৩ এর আহ্বায়ক সৈয়দ তাসনীন হোসাইন তানু'র সভাপতিত্ব এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ এমপি, সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি বক্তব্য প্রদান করেন। এছাড়া সম্মানিত অতিথির বক্তব্য প্রদান করেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও নাট্যজন ম হামিদ এবং নাট্যকার, নির্দেশক ও অভিনেতা নাট্যজন মামুনুর রশীদ।
স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, নাটক জীবন ও সমাজ পরিবর্তনের হাতিয়ার। সৈয়দ বদরুদ্দিন হোসাইন ছিলেন ভাষা সৈনিক ও অকুতোভয় মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক ও লেখক। তাই আজীবন পদাতিক নাট্যসংসদের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে তিনি সমাজ পরিবর্তনে ভূমিকা রেখে গেছেন। স্পীকার বলেন, পদাতিক আয়োজিত এ নাট্যোৎসবে দেশীয় ও ভারতীয় নাট্যদল আছে। তাই পারস্পরিক সংস্কৃতি বিনিময়ের এই উদ্যোগকে তিনি ধন্যবাদ জানান এবং এই উদ্যোগের সফলতা কামনা করেন।
তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিল্প ও সাহিত্যের বিকাশে নিরলস কাজ করে চলেছেন। তিনি অসচ্ছল, অসুস্থ শিল্পীদের কল্যাণে ৫০কোটি টাকা বরাদ্দ করেছেন এবং প্রতি বছর বাজেটে শিল্প ও সাংস্কৃতিক অঙ্গণের জন্য আলাদা বরাদ্দের ব্যবস্থা রেখেছেন।
তিনি বলেন, নতুন প্রজন্মের স্বপ্রণোদিত অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশের নাটক সারাবিশ্বে দেশীয় শিল্প-সাহিত্য ছড়িয়ে দিয়ে খ্যাতি অর্জন করবে। শিল্প ও সংস্কৃতির বিকাশে সরকার ও প্রাইভেট অর্গানাইজেশনের সহায়তা সময়ের সাথে সাথে বৃদ্ধি পাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।
এসময় তিনি ২০২২ সাল অনুযায়ী নাট্যব্যক্তিত্ব দেব প্রসাদ দেবনাথ, রুপসজ্জা শিল্পী বঙ্গজিত দত্তকে (মরণোত্তর) এবং ২০২৩ সাল অনুযায়ী নাট্যব্যক্তিত্ব মাসুম আজিজ (মরণোত্তর) এবং নাট্যব্যক্তিত্ব তারিক আনাম খানকে স্মারক সম্মাননা প্রদান করেন।
এরপর স্পীকার 'সুন্দরম' নাট্যদলের পরিবেশনায় ''নৈশব্দ্যে '৭১'' নাটকটি উপভোগ করেন।
সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সহযোগিতায় এ অনুষ্ঠানে ১২ মে থেকে ১৮ মে পর্যন্ত সপ্তাহব্যাপী জাতীয় নাট্যশালা মূল হল, এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হল এবং স্টুডিও থিয়েটার হলে মোট ২১টি নাটক প্রদর্শিত হবে।
সৈয়দ বদরুদ্দিন হোসাইনের শততম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এ নাট্যোৎসবে জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী এমপি, আসাদুজ্জামান নূর এমপি, বদরুদ্দোজা ফরহাদ হোসেন এমপি, সুবর্ণা মুস্তাফা এমপি, আরমা দত্ত এমপি, নাহিদ ইজাহার খান এমপি, আদিবা আনজুম মিতা এমপি, জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব কে এম আব্দুস সালাম এমপি, স্পীকারের স্বামী এবং পদাতিক নাট্যসংসদের সহ-সভাপতি সৈয়দ ইশতিয়াক হোসেন, শিল্পকলা একাডেমির সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ, আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Jamie Belcher

info@jagobahe24.com

News portal manager

Follow Me:

Comments