সারাদেশ

তিস্তা এলাকার ভাঙন রোধের প্রতিশ্রুতি পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রীর

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধাঃগাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার তিস্তার ভাঙন কবলিত এলাকা হেলিকপ্টারে ঘুরে দেখেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক। এরপর মুঠোফোনে তিনি ভাঙন রোধের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রোববার (২১ মে) সকালে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক সুন্দরগঞ্জ উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের কাশিম বাজারের হেলিকপ্টার অবতরণ করে তিস্তার ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করার কথা ছিল।কিন্তু অনিবার্য কারণে কাশিমবাজারে অবতরণ না করে হেলিকপ্টারে ঘুরে তিস্তার ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন।এসময় তিনি হেলিকপ্টারে থেকে বেশ কয়েকজন ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলেন। পরে তিনি কুড়িগ্রাম জেলায় সফর করেন।
কাশিমবাজার নাজিমাবাদ বিএল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম রঞ্জু বলেন, প্রতিমন্ত্রী ফোনে তার সঙ্গে কথা বলেছেন। কাশিমবাজারসহ ৪টি প্রতিষ্ঠান রক্ষায় নদী ভাঙন স্থায়ীভাবে রোধ করার অনুরোধ জানান তিনি। এতে প্রতিমন্ত্রী ভাঙন রোধের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।
হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান মোজাহারুল ইসলাম বলেন, আমাদের ইউনিয়নটি তিস্তা নদীবেষ্টিত। প্রতিবছর ভাঙনের শিকার হচ্ছে শতাধিক পরিবার ও হাজার একর ফসলি জমি। ভাঙন রোধে বর্তমানে হরিপুর ইউনিয়নের কারেন্ট বাজার এলাকায় জিও ব্যাগ ও জিও টিউব ফেলা হচ্ছে। তবে স্থায়ীভাবে ভাঙন রোধ করতে না পারলে চলতি মৌসুমে কাশিমবাজারসহ ৪টি প্রতিষ্ঠান নদীগর্ভে বিলিন হয়ে যেতে পারে।
গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিবার্হী প্রকৌশলী হাফিজুল হক বলেন, দীর্ঘদিনের ভাঙনে হরিপুর ইউনিয়নের কাশিমবাজার এলাকায় ব্যাপক ক্ষতি হয়। ভাঙন কবলিত এলাকায় জিও টিউব ও জিও ব্যাগ ফেলা হচ্ছে।
সুন্দরগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী বলেন, তিস্তার করাল গ্রাস থেকে হরিপুরের কাশিমবাজার, হাইস্কুল প্রাইমারি স্কুল, বালিকা স্কুল, মাদরাসা রক্ষা অত্যন্ত জরুরি হয়ে পড়েছে। এজন্য স্থায়ীভাবে ভাঙন রোধের ব্যবস্থা নিতে হবে।

Jamie Belcher

info@jagobahe24.com

News portal manager

Follow Me:

Comments