February 26, 2024
সারাদেশ

স্বস্তি নেই সবজির বাজারে সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধাঃ চলমান ঊর্ধ্বগতির বাজারে কিছুতেই হিসেব মিলছে না মধ্য আয়ের মানুষদের। মাছ-মাংস-মশলার পাশাপাশি স্বস্তি নেই সবজির বাজারেও, ৪০ টাকার নিচে কোনো সবজি নেই বললেই চলে।শুক্রবার (২৬ মে) দুপুরে কালিবাড়ি বাজার কাঁচা বাজারে ঘুরে এমন চিত্র পাওয়া গেছে।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, প্রতি কেজি পটল ৫০ টাকা, ঢেঁড়স ৪০ টাকা, বেগুন ৪০, ঝিঙে ৪০ টাকা, বরবটি ৪০ টাকা, কাঁকরোল ৬০ টাকা, পেঁপে ৪০ টাকা, করলা ৬০ টাকা, টমেটো কেজি ৪০ টাকা, মুলা ৫০ টাকা, শসা ৬০-৬৫ টাকা এবং মিষ্টি কুমড়া (ফাঁলি) ৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

অন্যদিকে, গাজর প্রতি কেজি৬০ টাকা, কচুর লতি ৭০ টাকা, কাঁচামরিচ প্রতি কেজি ১২০টাকা, লাউ প্রতি পিস ৫০-৬০ টাকা, জালি কুমড়ার পিস ৫০ টাকাএবং কাঁচাকলা প্রতি হালি ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

শাক-সবজির এমন ঊর্ধ্বধমুখী প্রবণতায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ক্রেতারা। পলাশবাড়ী ব্যাক কাঁচাবাজারে বাজার করতে আসা রিপন বলেন, শাক-সবজির বাজারে। ভাবলাম বেঁচে গেছি। এসে দেখি ওমা! ৪০ টাকার নিচে কোনো সবজিই নেই। আমাদের কৃষিপ্রধান দেশ, কিন্তু এরপরও এত দাম সবজির! কী করে সম্ভব?আরেক ক্রেতা জহিরুল ইসলামও বললেন একই কথা। তিনি বলেন, সব ধরনের সবজির দাম বেড়েছে। এটা সম্পূর্ণ কারসাজি। বাজার তো সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে। বাজার ঘুরে দরদাম সম্পর্কে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বাজারে ৭০/৮০ টাকা কেজির নিচে কোনো সবজি নেই। সব ধরনের সবজিই যদি এত বাড়তি দামে বিক্রি হয়, তাহলে আমরা কীভাবে কিনব?নিকেতন গেটের কাঁচাবাজারে এসেছিলেন সোলাইমান হোসেন। তিনি বলেন, বাজারে এসে তো মাথা ঘুরাচ্ছে রীতিমতো। সবজির দাম দেখে আধা কেজি, আড়াইশ গ্রাম করে সবজি কেনা লাগছে। যেই সবজির দাম করছি সেটা ৫০ টাকা, কম দামে কোনো সবজি নেই বাজারে। এত দাম হলে আমরা নিম্ন আয়ের মানুষ তো সবজিও কিনতে পারবো না।

হঠাৎ সবজির এমন বাড়তি দাম সম্পর্কে মহাখালী কাঁচা বাজারে বিক্রেতা আঞ্জু বলেন, অতিরিক্ত গরমে সবজির সরবরাহ কম। অনেক ধরনের সবজির মৌসুম এখন শেষের দিকে। ফলে সেসব সবজির দাম বাড়তি। বৃষ্টি নেই বললেই চলে, অতিরিক্ত গরম, যে কারণে সবজি কম ফলছে। চাহিদার তুলনায় পণ্য ঢাকায় কম আসায় কারওয়ান বাজারসহ পাইকারি বাজারগুলোতেই সবজির দাম বাড়তি। যে কারণে খুচরা বাজারে এর প্রভাব পড়েছে।

পেঁপের দাম বাড়ার পেছনে কারণ কি জানতে চাইলে তিনি বলেন, পেঁপের বাজার হঠাৎ করেই বেড়েছে, কারণ পেঁপের মৌসুম শেষের দিকে, গাছে এখন পেঁপে নেই। তাই প্রতি কেজি খুচরা বাজারে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া চাহিদার তুলনায় বাজারে সরবরাহ কম থাকায় করলার দাম বেড়ে ৬০ টাকা হয়েছে।

Jamie Belcher

info@jagobahe24.com

News portal manager

Follow Me:

Comments